দিনাজপুর-৪ আসনে ৭জনের মনোনয়ন সংগ্রহ ও জমাদান

বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ | ১:৪৬ অপরাহ্ণ |

দিনাজপুর-৪ আসনে ৭জনের মনোনয়ন সংগ্রহ ও জমাদান
সংগ্রহীত ছবি

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) একাদশ সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে সংসদীয় আসন-৯ দিনাজপুর-৪ (চিরিরবন্দর-খানসামা) আসনে আওয়ামীলীগের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি, সাবেক হুইপ মিজানুর রহমান মানু, ডা: এম আমজাদ হোসেন, তারিকুল ইসলাম তারিক ও এ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলামসহ ৫জন বিএনপির সাবেক হুইপ মিজানুর রহমান মানু, ডা: আখতারুজ্জামান মিয়া ও কেন্দ্রীয় সিনিয়র নেতাসহ মনোনয়ন বোর্ডের নেতৃবৃন্দের কাছে অনেকেই ধণ্যা দিচ্ছেন। অনেকেই কেন্দ্রের সবুজ সংকেতের জন্য সিনিয়র নেতাদের দ্বারস্থ হচ্ছেন। এ মনোনয়ন প্রাপ্তি নিয়ে নিজ নিজ এলাকায় চলছে চুলচেরা বিশেষন। তৃণমূল নেতাসহ ও সাধারণ জনগনের মধ্যে এ নিয়ে চলছে ব্যপপক জল্পনা কল্পনা। তাদের মতে আওয়ামীলীগ ও জাতীয় পার্টি জোটবদ্ধ নির্বাচন করলে বিএনপির ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী মাঠে সুবিধা করতে পারবেনা।

 

এদের মধ্যে এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি পুনরায় মনোনয়ন প্রাপ্তির প্রত্যাশ্য করছেন। তারপরেও নেতাকর্মীরা নিয়মিত দলীয় কর্মসুচী ছাড়াও নেতা-কর্মীদের সঙ্গে তার সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রাখছেন। এলাকায় প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকার ব্যাপক উন্নয়ন করায় সাধারন জনগন ও তৃণমূলের নেতাকর্মীরা তার প্রতি বেশ দুর্বল। পুনরায় তার মনোনয়ন ও জয়লাভের সম্ভাবনা বেশি। তার জনপ্রিয়তা বর্তমানে তুঙ্গে। এলাকায় সকলে বিশ্বাস করেন আওয়ামীলীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুনরায় তাকেই মনোনয়ন দেবেন। চিরিরবন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. আহসানুল হক মুকুল ও খানসামা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী লায়নসহ মুরব্বী গোছের নেতাকর্মীরা তার পক্ষে একতা থাকায় তার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্ট্রি হয়েছে।

অপরদিকে সাবেক হুইপ মো. মিজানুর রহমান মানু তার বিশ্বস্থ মাত্র কয়েকজনের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চললেও তার তেমন জনপ্রিয়তা নাই। ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে পদত্যাগ করে নৌতার বিপরীতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে টিভি মার্কা নিয়ে নির্বাচন করে এই আসনে মাত্র সাড়ে ৪ হাজার ভোট পাওয়ায় তার জনপ্রিয়তায় ধস নামে। সেসময় দলীয় প্রধান প্রধান শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে বিভন্ন বক্তব্য দেয়ার কারণে নেতাকর্মীরা তার উপর ক্ষুদ্ধ।

এছাড়াও চিরিরবন্দর আমেনা বাকী রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও ঢাকা ল্যাব এইড হাসপাতালের অর্থপেডিক্রা বিশেষজ্ঞ মুক্তিযোদ্ধা অধ্যপক ডাঃ এম আমজাদ হোসন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেতে তদ্বির শুরু করেছেন। তার বিরুদ্ধে কৌশল জমি করায়ত্তে’র অভিযোগ থাকায় সাধারন জনগন ও নেতাকর্মীরা তার উপর অনেকটা নাখোশ। দিনাজপুর জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক এডঃ সাইফুল ইসলাম মনোনয়নপ্রাপ্তির জন্য তদ্বির চালাচ্ছেন।

অপরদিকে ২০ দলীয় জোটের ও ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো. আখতারুজ্জামান মিয়া আবারও মনোনয়ন পেতে চেষ্টা চালাচ্ছেন। বিএনপিতে তার জনপ্রিয়তা খুবই ভাল। তিনি এই আসনের বিভিন্ন হাটে-বাজারে প্রায় প্রতিদিন দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে থাকায় নেতাকর্মীরা তার প্রতি বিশ্বস্থ। এছাড়াও লুসাকা গ্র““পের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট শিল্পপতি মো. হাফিজুর রহমান দলীয় মনোনয়ন পেতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে তার ঘনিষ্টজনেরা জানিয়েছেন।

দীর্ঘদিন এলঅকায় না থাকায় তার জনপ্রিয়তা শুন্যের কোঠায়। এক সময় এলাকায় সেমাই, চিনি, কাপড় দিয়ে বিএনপিরসহ অন্যান্য দলের সুবিধাবাদি লোকজনকে তার পক্ষে টানলেও এখন সেই লোকগুলি সমাজে হেয় হয়ে পড়েছে। তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর বাইরে অন্য কাউকে মেনেই নেবেনা বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।

এলাকার মুরব্বি গোছের লোকেরা জানান, বিএনপির আখতারুজ্জামান মিয়া ও আওয়ামীলীগের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর মধ্যেই নির্বাচন তুমুল প্রতিদ্বন্দিতা হবে। যে দলের হোক অন্য কোন প্রার্থী মাঠে সুবিধা করতে পারবেনা।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

কলেজপাড়া,মাজার রোড,ঠাকুরগাঁও-৫১০০, বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com
প্রধান কার্যালয়ঃ বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com