ফের দিল্লির মসনদে ফিরছেন মোদী: বুথ ফেরত সমীক্ষা

সোমবার, ২০ মে ২০১৯ | ২:৪৯ অপরাহ্ণ |

ফের দিল্লির মসনদে ফিরছেন মোদী: বুথ ফেরত সমীক্ষা
ছবি- সংগৃহীত

ফের ক্ষমতায় আসছে এনডিএ, ইঙ্গিত অধিকাংশ বুথ ফেরত সমীক্ষায় অধিকাংশ বুথফেরত সমীক্ষাই বলছে, ৩০০-র কাছাকাছি আসন পেতে পারে বিজেপির নেতৃত্বে এনডিএ জোট। খবর আন্দবাজার পত্রিকা’র

ফের দিল্লির মসনদে নরেন্দ্র মোদী। বিপুল সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসতে চলেছে এনডিএ। শেষ দফা নির্বাচন শেষে বুথফেরত সমীক্ষায় তেমনটাই ইঙ্গিত। বিজেপি ও জোট শরিক মিলিয়ে ৩০০-র কাছাকাছি আসন পেয়ে ফের প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদী। ইউপিএ জোটকে এ বারও বসতে হচ্ছে বিরোধীদের চেয়ারেই।

অন্য দিকে ফেডারেল ফ্রন্টের জল্পনাও যে সুদুর অতীত, সেই ইঙ্গিতও দিয়ে রাখল বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম এবং সমীক্ষক সংস্থাগুলির করা বুথফেরত সমীক্ষা। অন্য দিকে পশ্চিমবঙ্গেও বিজেপির ব্যাপক উত্থানের সম্ভাবনা সব সমীক্ষাতেই। তবে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি, এই সব বুথফেরত সমীক্ষা পুরোটাই গসিপ। চূড়ান্ত ফলাফল জানা যাবে ২৩ মে বৃহস্পতিবার। ম্যাজিক ফিগার ২৭২।

বুথফেরত সমীক্ষা ধ্রুব সত্য তো নয়ই, সব সময় মিলে যায় এমনও বলা যায় না। এমনকি, অনেক সময় সমীক্ষার ফলাফলের ধারেকাছেও যায় না ভোটগণনার ফল। তবে একই সঙ্গে সমীক্ষা এবং ফলাফল প্রায় মিলে যাওয়ার নজিরও রয়েছে বহু বার। ফলাফল যাই হোক, নির্বাচনী ফলাফলের প্রবণতা বোঝার ক্ষেত্রে বুথফেরত সমীক্ষা রাজনৈতিক দল এবং নির্বাচনী পর্যবেক্ষকদের কাছে অন্যতম হাতিয়ার।

নির্বাচন কমিশনের বিধিনিষেধ অনুযায়ী শেষ দফার ভোটগ্রহণ শেষ না হওয়া পর্যন্ত বুথফেরত সমীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা যায় না। ফলে রবিবার বেলা গড়াতেই বুথফেরত সমীক্ষা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে ওঠে। আর ভোটগ্রহণ শেষ হতেই টিভিতে চোখ রেখেছে গোটা দেশ। সেখানে অধিকাংশ সমীক্ষাতেই ফের বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দিল্লির মসনদে বসতে চলেছে বিজেপি।

অধিকাংশ বুথফেরত সমীক্ষাই বলছে, ৩০০-র কাছাকাছি আসন পেতে পারে বিজেপির নেতৃত্বে এনডিএ জোট। টুডেজ চাণক্য, রিপাবলিক টিভি-সিভোটার, এবিপি-নিয়েলসন, টাইমস নাও ভিএমআর, নিউজ নেশন, নিউজ ১৮-আইপিএসওএস— এর মধ্যে এনডিএ-কে সবচেয়ে বেশি ৩৫০টি আসন দিয়েছে টুডেজ চাণক্য। যদিও ১৪টি কমবেশি হতে পারে। তার পরই রয়েছে নিউজ-১৮ ৩৩৬টি আসন। উল্টো দিকে এবিপি-নিয়েলসন দিয়েছে সবচেয়ে কম আসন ২৬৭। তার পরই নিউজ নেশন ২৮৯ থেকে ২৯০টি আসন।

২০১৪ সালের চেয়ে কিছুটা ভাল ফল হলেও ক্ষমতার ধারেকাছে আসতে পারছে না কংগ্রেসের নেতৃত্বে ইউপিএ জোট, ইঙ্গিত অধিকাংশ সমীক্ষায়। টাইমস নাও-ভিএমআরের সমীক্ষা ইউপিএ জোটকে দিয়েছে সবচেয়ে বেশি আসন (১৩২)। সবচেয়ে কম টুডেজ চাণক্যর সমীক্ষায়, ৯৫টি (কমবেশি ৯) আসন। বাকি এবিপি-নিয়েলসন-এর মতে ১২৭ এবং রিপাবলিক-সিভোটারের সমীক্ষায় ইউপিএ জোটের ঝুলিতে যেতে পারে ১২৮টি আসন।

উত্তরপ্রদেশে মায়াবতী-অখিলেশ, পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল, অন্ধ্রপ্রদেশে টিডিপি, দিল্লিতে আপের মতো দলগুলি জোট বেঁধে ফেডারেল ফ্রন্টের জল্পনা তৈরি করেছিল। কিন্তু ভোট পরবর্তী বুথ ফেরত সমীক্ষাগুলিতে এই জোটের পক্ষেও সরকার গঠনের কাছাকাছি যাওয়া সম্ভব নয়। সমীক্ষাগুলিতে অন্যান্য দলের প্রাপ্ত আসনের সম্ভাব্য সংখ্যা দেওয়া হয়েছে। এই অংশের মধ্যেই রয়েছে এই জোটের অধিকাংশ দলের প্রাপ্ত আসন। এই দলগুলির প্রাপ্ত সংখ্যা ১৫০তেও পৌঁছয়নি কোনও সমীক্ষায়। ১৪৮ সর্বোচ্চ, এবিপি-নিয়েলসনের সমীক্ষায়। টাইমস নাও-ভিএমআর-এর সমীক্ষায় সবচেয়ে কম আসন (১০৪টি) পাওয়ার সম্ভাবনা ইউপিএ জোটের।

তবে এর মধ্যেই রয়েছে তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও, ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক এবং অন্ধ্রের বিরোধী দল জগনমোহন রেড্ডির ওয়াইএসআর কংগ্রেসের আসনও বাদ দিতে হবে। কারণ এই তিন জন এখনও নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেননি। এ ছাড়াও রয়েছে, আরও অনেক ছোট ছোট দল। সেগুলি বাদ দিলে সরকার গঠনের নিরিখে এই জোটের ঝুলিতে আসন সংখ্যা ধর্তব্যের মধ্যে আসে না। কংগ্রেস এই জোটে শামিল হলে অবশ্য অন্য কথা। অর্থাৎ সমীক্ষার ফলাফল মিলে গেলে তো বটেই, বিরাট কোনও হেরফের না হলে আগামী পাঁচ বছর দেশের ভাগ্য নির্ধারণের ভার প্রধানমন্ত্রী মোদী তথা এনডিএ-র উপরই বর্তাচ্ছে বলেই ইঙ্গিত দিচ্ছে বুথফেরত সমীক্ষা।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

বেনাপোল বড়আঁচড়া গ্রাম থেকে অস্ত্র-গুলি-ম্যাগজিন সহ গান পাউডার উদ্ধার…

কলেজপাড়া,মাজার রোড,ঠাকুরগাঁও-৫১০০, বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com
প্রধান কার্যালয়ঃ বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com