ইবিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে কুষ্টিয়া ঝিনাইদহ মহাসড়ক অবরোধ

বৃহস্পতিবার, ০৪ অক্টোবর ২০১৮ | ৪:৪৫ অপরাহ্ণ |

ইবিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে কুষ্টিয়া ঝিনাইদহ মহাসড়ক অবরোধ
ইবিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে কুষ্টিয়া ঝিনাইদহ মহাসড়ক অবরোধ

অামিনুল ইসলাম (ইবি প্রতিনিধি): সরকারি চাকরিতে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি বাতিলের প্রতিবাদে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) গেটে অবস্থান নিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে ইবি গেটে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কে অবরোধ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা। ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল রাখার দাবিতে তারা গণ সমাবেশ, র‍্যালী ও মানববন্ধন করেন।


এসময় মহাসড়কের দু’পাশে শতশত যানবহন আটকা পড়ে।

এর আগে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরি থেকে সব ধরনের কোটা বাতিলের প্রস্তাব অনুমোদন দেয় মন্ত্রীসভা।


সরকারের এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।
আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ব্যানারে এ আন্দোলন করা হচ্ছে।আন্দোলনকারীরা এসময় বিভিন্ন স্লোগান দেন মোদের দাবি একটা কোটা চাই কোটা চাই,একাত্তরের হাতিয়ার গর্জে উঠো আরেকবার,পদ্মা মেঘনা যমুনা আমাদের দাবি মানতে হবে মানতে হবে ইত্যাদি স্লোগানে তারা মহাসড়কে আন্দোলন করে।

মানবনন্ধনে বক্তারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাধারী বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মর্যাদা সমুন্নত রাখার ব্যাপারে আন্তরিক ও সচেতন থাকলেও প্রশাসনের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা একশ্রেণির স্বাধীনতাবিরোধী কর্মকর্তা প্রতিটি পদক্ষেপে মুক্তিযোদ্ধাদের অসম্মান করার ব্যাপারে সচেষ্ট রয়েছে।


বক্তারা আরও বলেন, প্রশাসনের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা স্বাধীনতাবিরোধীরা অনেকদিন থেকে এটাই চেয়েছিল মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা যাতে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়ে সরকারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে না পারে। তারা যাতে সারাজীবন পিয়ন,দারোয়ান ও সুইপারের মতো চাকরি করে। জীবনবাজি রেখে যুদ্ধ করে যে মুক্তিযোদ্ধারা তাদের রক্তের বিনিময়ে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত করেছে,সেই বাংলাদেশে মুক্তিযোদ্ধারা তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির নাগরিক হয়ে থাকতে পারে না।

এসময় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর এম এম নাসিমুজ্জামান বলেন তোমরা যে আন্দোলন করছো আমরাও তোমাদের সাথে একমত। তোমারা জননেত্রী শেখ হাসিনার উপর আস্থা রাখো। তোমাদের আন্দোলনের ফলে মহাসড়কের দু’পাশে শতশত যানবহন আটকা পড়েছে। এখন তোমারা রাস্তা ছেড়ে দাও। আমরা প্রশাসন তোমাদের আন্দোলনের সাথে একতত্তা প্রকাশ করছি।

ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) রতন শেখ বলেন তোমাদের দাবির যৌক্তিক আমরাও তোমাদের দাবির সাথে একমত। মুক্তিযোদ্ধারা না থাকলে বাংলাদেশ সৃষ্টি হতো না। তাই তাদের সন্তান্দের কোটা পাওয়া প্রাপ্য।
অন্য আন্দোলনে তোমরা দেখেছো আমরা বাধা প্রদান করেছি। তবে তোমাদের দাবি যৌক্তিক তাই তোমাদের আন্দোলনে আমরা বাধা প্রদান করি নি।তোমাদের রাস্তা অবরোধের ফলে মহাসড়কের দু’পাশে শতশত যানবহন আটকা পড়েছে এখন তোমাদের রাস্তা ছেড়ে দেওয়া উচিৎ।

কোটা আন্দোলনের নেতা আলমগীর ইসলাম আলো বলেন সবাই রাস্তা ছেড়ে দিন। আমাদের দাবি না মানা হলে আমরা আগামী আরো কঠোর অবস্থান গ্রহন করবো। আমাদের দাবি যতদিন না মানা হবে আমরা পিছুপা হবো না।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com