একাত্তরের

গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি চাই

সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯ | ১২:০০ অপরাহ্ণ |

গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি চাই
ফাইল ছবি

একাত্তরের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেতে নানা বেসরকারি প্রচেষ্টা আছে। তবে নেই জোরালো সরকারি কূটনৈতিক উদ্যোগ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কার্যকর উদ্যোগ না থাকায় ২৫ মার্চ আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবসের স্বীকৃতি আদায়ের সুযোগ এর আগে হাতছাড়া হয়ে গেছে। এখন খোলা আছে শুধু একাত্তরের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ের পথ। তবে এ ক্ষেত্রেও জোরালো কূটনৈতিক উদ্যোগ দেখা যাচ্ছে না।

এদিকে পাকিস্তান এখনও একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধকে ‘গৃহযুদ্ধ’ কিংবা ‘ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ’ হিসেবে প্রচার করে এই গণহত্যা ও ত্রিশ লাখ শহীদের আত্মদানের ইতিহাসকে বিকৃত ও বিতর্কিত করার অপচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। এ গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি মিললে বিভিন্ন ঐতিহাসিক দলিলে এ-সংক্রান্ত ইতিহাস ও এর হন্তারক রাষ্ট্র, সংস্থা ও ব্যক্তিদের সম্পর্কেও নানা তথ্যের উল্লেখ থাকবে। ইতিহাসের দায় এড়াতে পাকিস্তানও তাই নানাভাবে এ স্বীকৃতি আদায়ের পথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে চলেছে এবং নানা অপপ্রচার অব্যাহত রেখেছে।

webnewsdesign.com

কূটনৈতিক সূত্র জানাচ্ছে, আঞ্চলিক এবং বিশ্বরাজনীতির সাম্প্রতিক কৌশলগত অবস্থান, সম্পর্ক ও মিথস্ট্ক্রিয়ার কারণেই বাংলাদেশের পক্ষে একাত্তরের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির ব্যাপারে কূটনৈতিক প্রচেষ্টার ক্ষেত্র সীমিত হয়ে পড়েছে। বাংলাদেশ এই গণহত্যার স্বীকৃতির জন্য জাতিসংঘে প্রস্তাব তুললে পাকিস্তান এর বিরুদ্ধে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মতো রাষ্ট্রও বাংলাদেশের প্রস্তাবের বিপক্ষে যেতে পারে। এ ব্যাপারে যথেষ্ট প্রস্তুতি নিয়ে ধৈর্য ও প্রজ্ঞার সঙ্গে না এগোলে অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পররাষ্ট্রীয় সম্পর্ক ও কূটনৈতিক প্রক্রিয়ার ওপরও এর প্রভাব পড়তে পারে। সব দিক বিবেচনায় নিয়ে বাংলাদেশকে এ কারণে সতর্কতার সঙ্গে ‘ধীরে চলো’ নীতিতে এগোতে হচ্ছে।

অবশ্য মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক জানান, একাত্তরের গণহত্যার স্বীকৃতি পেতে সরকারি পর্যায় থেকে আন্তর্জাতিক পরিসরে নানামুখী প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সুনির্দিষ্ট প্রচেষ্টা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিকভাবে যেসব প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হয়, তা বিবেচনায় রেখেই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ কূটনৈতিক তৎপরতা চালাচ্ছে।

এ ব্যাপারে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক  বলেন, গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায় একটা দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া। এ ক্ষেত্রে প্রথমে জাতিসংঘের উল্লেখযোগ্য সদস্য রাষ্ট্রগুলোর সমর্থন পেতে হয়। এর পর আরও অনেক ধাপ পেরিয়ে জাতিসংঘে প্রস্তাব উত্থাপন করতে হয়। এই দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া কবে শেষ হবে, তাও বলা সম্ভব নয়। তবে এটা সত্য, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বসে নেই, যতভাবে প্রচেষ্টা চালানো সম্ভব, মন্ত্রণালয় তা চালিয়ে যাচ্ছে।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com