গুরুত্ব বাড়ছে রাজশাহী এয়ারপোর্টের

শনিবার, ১৯ মে ২০১৮ | ৮:৪০ অপরাহ্ণ |

গুরুত্ব বাড়ছে রাজশাহী এয়ারপোর্টের

রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহী! নামটির সাথে শাহী আনা বা রাজকীয় একটা ভাব রয়েছে। তবে অর্থনৈতিক বিবেচনায় চরম অবহেলা ও বৈষম্যের শিকার এই অঞ্চলের মানুষ। আমাদের রয়েছে প্রচুর মেধাবী ও কর্মঠ মানুষ। শিক্ষানগরী হওয়ায় রয়েছে শিক্ষিত জনবল। জীবনযাত্রার ব্যয় কম হওয়ায় খুব সহজেই এই অঞ্চলে স্বল্প বেতনেই শ্রম বা মেধাকে কাজে লাগান সম্ভব। কর্মসংস্থার সৃষ্টিই এখন এই অঞ্চলের প্রধান লক্ষ্য। এজন্য প্রয়োজন এই অঞ্চলে শিল্প ও কলকারখানা প্রতিষ্ঠা করা।

রাজশাহী তথা উত্তর অঞ্চল কৃষি পণ্যের জন্য বিখ্যাত। স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে বাইরে রফতানি করার মতো সক্ষমতা রয়েছে। সেই অর্থে প্রয়োজন নিজস্ব উৎপাদিত পণ্য বাইরে প্রেরণ করা। তবে দুর্বল যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে সেই আশা তিমিরেই রয়ে যায়। দুর্বল যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণেই এই অঞ্চলে শিল্প ও কলকারখানা গড়ে ওঠার ক্ষেত্রে প্রধান অন্তরায়। রাজশাহীর যে এয়ারপোর্ট রয়েছে তাতে বহুদিন কোন বিমান ওড়েনি। কারণ হিসেবে উল্লেখ করা যায়, শিল্পায়ণ ও কর্মসংস্থানের অভাবে এই অঞ্চলের মানুষগুলোর জীবনের গতিময়তা কম। ভাবখানা এমন যেন, অপচয় করার মতো প্রচুর সময় হাতে রয়েছে তাদের।

তবে আশার কথা এখন এই এয়ারপোর্ট দিয়ে নিয়মিত তিনটি প্রতিষ্ঠানের বিমান ওঠানামা করছে। যাত্রীও রয়েছে আশানুরূপ। এই অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে রাজশাহীর এয়ারপোর্টের সক্ষমতা ও দক্ষতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে বলেও জানা গেছে। বর্তমান এয়ারপোর্টকে গড়ে তোলা হবে আন্তর্জাতিক এয়ারপোর্ট। সেই লক্ষ্যে এয়ারপোর্টের আশপাশের এলাকার ভূমি ও আনুষঙ্গিক বিষয়াদি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই এই এলাকার পূর্ব ও উত্তর পাশের জমি হাতবদলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

জীবনযাত্রার ব্যয় কম হওয়ায় এই অঞ্চলের প্রতি অনেকেরই সুদৃষ্টি রয়েছে। সে দিক দিয়ে দেখতে গেলে অনেক প্রতিষ্ঠান স্বপ্রণোদিত হয়ে গড়ে তুলবেন শিল্প কলকারখানা। ইকো টুরিজম বা কালচারাল টুুরিজম বর্তমান বিশ্বে এক নতুন সম্ভবনার নাম। কালচার বা সংস্কৃতির দিক থেকে আমাদের উত্তরাঞ্চলের রয়েছে বিশাল সম্ভার। আমাদের কালচারকে কাজে লাগিয়ে বহির্বিশ্বের মানুষগুলোকে আকৃষ্ট করতে পারলে, তারা সাউথ এশিয়ার টুরিজম সমৃদ্ধ দেশ মালয়েশিয়া, নেপাল, থাইল্যান্ড, ইন্ডিয়া, চীনের মতো আমাদের এই উত্তরাঞ্চল তথা রাজশাহীর দিকেও ধাবিত হবে। গুরুত্ব বাড়বে রাজশাহীর। ফলে সৃষ্টি হবে অবহেলিত ও বৈষম্যের শিকার মানুষগুলোর কর্মসংস্থানের। যা এই অঞ্চলের মানুষগুলোর বহুদিনের দাবি।

উত্তরাঞ্চচলের কৃষি পণ্য তথা সবজি, মাছ ও ফলসহ উৎপাদিত নানাবিধ পণ্য দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের পাশাপাশি বিদেশেও রফতানি করা হবে এই এয়ারপোর্ট ব্যবহার করে। সেই লক্ষ্যে এই এয়ারপোর্টে কার্গো বিমান উড্ডয়নের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এতে করে শুধু এই অঞ্চলের পণ্য রফতানিই নয় সম্ভব হবে প্রয়োজনীয় বৈদেশিক পণ্য আমদানি করা। সেই সাথে এই আন্তর্জাতিক মানের এয়ারপোর্ট নির্মাণের ফলে এই অঞ্চলে দশের অন্যান্য অঞ্চলের পাশাপাশি গুরুত্ব পাবে বহি:বিশ্বেও।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

পীরগঞ্জে মাদকের ভয়াল ছোবলে স্কুল-কলেজের ছাত্র এবং তরুণরা…

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com