টানা দুই দিনের পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভে উওাল ইরান

রবিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ | ১১:৩৮ পূর্বাহ্ণ |

টানা দুই দিনের পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভে উওাল ইরান

সরকারবিরোধী এবং সরকারপক্ষের পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভে জড়ালো হয়ে পড়েছে ইরান।

গতকাল শনিবার সরকারের সমর্থকেরাও রাজপথে নেমে এসেছে।দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি এবং দুর্নীতির অভিযোগে বিভিন্ন শহরে সরকারের বিরুদ্ধে দুই দিনের বিরল বিক্ষোভের পর এখনো পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসনি।

তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য জনগণকে যেকোনো ধরনের ‘বেআইনি সমাবেশ’ এড়িয়ে চলার আহ্বান জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ধরপাকড়ের ঘটনায় ইরানি কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করে দিয়েছে ইতি মধ্যেই।

দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হুঁশিয়ারি, ‘বিশ্ব কিন্তু পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে।’
বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল বৃহস্পতিবার, উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় মাশহাদ শহরে থেকে। কে এই ঘটনার মুল নায়ক তা এখনো স্পষ্ট নয়।

ওই দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ইশাক জাহাঙ্গিরির সাংধারন ধারণা থেকে তিনি জানান দেশটির কট্টরপন্থী ও অতিরক্ষণশীল বিরোধীরা সম্ভবত প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির বিরুদ্ধে এই বিক্ষোভের উদ্যোগ নিয়েছিল, কিন্তু একপর্যায়ে তারা বিক্ষোভকারীদের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে।
দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদের স্লোগান
মাশহাদ শহরে বহু লোক রাস্তায় নেমেছে।

ওই জায়গা থেকে গত বৃহস্পতিবার ৫২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। শুক্রবার থেকেই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে রাজধানী তেহরান এবং কেরমানশাহ, ইস্পাহান, কোম, কাজভিন, হামেদান, রাসত শহরে।

কেরমানশাহে আরো ৩০০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ঢল কমাতে দিতে জলকামান ব্যবহার করে।

১৯৭৯ সালে ইসলামিক বিপ্লবের আগের রাজতন্ত্রের পক্ষে স্লোগান বলে জানা গেছে
কোনো কোনো বিক্ষোভ থেকে।

অসন্তোষের সবচেয়ে ব্যাপক প্রকাশ-২০০৯ সালের বিতর্কিত নির্বাচনের পর এবারের বিক্ষোভই ।

প্রথমত নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু হলেও পরে তা দেশটির ধর্মীয় অনুশাসন ও সরকারি নীতিবিরোধী বিক্ষোভে রূপ নেয়।

ক্রমে তা দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলের অন্যান্য শহরে ছড়িয়ে পড়ে। এসব বিক্ষোভ থেকে রাজবন্দীদের মুক্তি ও পুলিশি নির্যাতন বন্ধের দাবিও জানানো হয়।

নতুন করে শুরু হওয়া বিক্ষোভের মাধ্যমে ২০০৯ সালে মতো অস্থির পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্টা ছিল। কিন্তু ইরানের জনগণ দেশকে ক্ষতিগ্রস্ত হতে দেবে না বলে
ইরানের রেভল্যুশনারি গার্ড এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

এই অভিযোগে ২০০৯ সালে আট মাসের বিক্ষোভে অস্থিতিশীল হয়ে পড়েছিল ইরান।

টানা দুই দিনের বিক্ষোভের পর গতকাল বড় ধরনের শক্তি প্রদর্শন করে সরকারপন্থীরা। তেহরানসহ বিভিন্ন শহরে হাজারো সমর্থক রাস্তায় নেমে আসে। জনসমাবেশ সম্প্রচার করে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন।

হোয়াইট হাউস বলেছে, ইরানে
জনগণ শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ করে সরকারের দুর্নীতি ও দুর্বল আর্থিক ব্যবস্থার এবং সন্ত্রাসবাদকে অর্থের জোগানের প্রতিবাদ জানিয়েছে। শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের গ্রেপ্তারের নিন্দা জানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

আর ট্রাম্প টুইটার বার্তায় বলেন, ইরানের জনগণের অধিকার, বিশেষ করে মতপ্রকাশের অধিকারের প্রতি সম্মান দেখানো উচিত সরকারের। বিশ্ব কিন্তু পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

পীরগঞ্জে মাদকের ভয়াল ছোবলে স্কুল-কলেজের ছাত্র এবং তরুণরা…

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com