ঠাকুরগাঁওয়ে দুই ভাইয়ের নাম উচ্চারণ করতে ভয় পায় গ্রামবাসী

বুধবার, ০৯ জানুয়ারি ২০১৯ | ৮:৫৫ পূর্বাহ্ণ |

ঠাকুরগাঁওয়ে দুই ভাইয়ের নাম উচ্চারণ করতে ভয় পায় গ্রামবাসী

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা বড়গাঁও ইউনিয়নের চৌরঙ্গী চৌধুরী হাট এলাকায় মাহাবুব নামে এক আওয়ামী লীগের কর্মীর দাপটে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে এলাকাবাসী। দিনে দুপুরে রাস্তার পাশে সরকারি গাছ কর্তন সহ সাধারণ মানুষকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে মাহাবুব ও তার কর্মী বাহিনী এমনই অভিযোগ ভুক্তভোগী এলাকাবাসীর।

মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিনে বড়গাঁও চৌধুরী হাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, পোষ্ট অফিসের সামনে দুটি সরকারি গাছ কর্তন করা হয়েছে। কর্তনকৃত গাছ সরিয়ে ফেললেও গাছের লতা পাতা ও গাছের গোড়া পড়ে রয়েছে। গাছ কর্তনের বিষয়ে হাটের কয়েকজন লোককে জিঞ্জাসা করলে নিরবতা পালন করেন বেশির ভাগ মানুষ। ওইসব নিরীহ মানুষের চোখে মুখে আতঙ্কের ছাপ দেখে বুঝা যায় ভয়ে কেও কিছু বলছে না।

webnewsdesign.com

দূর থেকে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এক দোকানদার বলেন, ভাই এলাকার কেউ গাছ কর্তনকারীর নাম বলবে না। ওই ব্যক্তির কথা শুনে কাছে গিয়ে কিছুক্ষন আলাপ-আলোচনার পর উঠে আসে প্রভাবশালী মাহাবুব নামে আওয়ামী লীগের কর্মীর নাম।

ওই দোকানদার বলেন, নির্বাচনের আগে থেকেই মাহাবুব ও তার ছোট ভাই ছাত্রলীগের বড়নেতা দাবিদার আসাদুজ্জামান রনি সরকার দলীয় নেতা বলে ক্ষমতার অপব্যবহার করে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব গড়ে তুলেছে। তারাই গত সোমবার সকলের উপস্থিতিতে পোষ্ট অফিসের সামনের গাছ দুটো কেটেছে। কিছুদিন আগে তাদের লোকজন এই বাজারের প্রতিটি দোকানে ভাঙ্গচুর ও তান্ডব চালিয়েছে বলে অভিযোগও করেন।

সিরাজুল ইসলাম (৭০) নামে এক বৃদ্ধ জানান, পুলিশও ভয়ে আওয়ামীলীগের কর্মী মাহাবুব ও তার ছোট ভাই রনির কথায় চলে যায়। আপনাদের লেখালেখিতে তাদের কিছুই হবে না। ক্ষমতা তো এখন তাদের হাতে। এলাকার চেয়ারম্যানকে অভিযোগ করলেও কোন লাভ নেই, কারন উনি তো বিএনপির লোক। তাই মানুষ ভয়ে কোথাও অভিযোগ করে না।

বড়গাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাত সিং জানান, নির্বাচনের আগে থেকে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের দাপটে অসহায় হয়ে পড়েছে চৌধুরী হাটের সাধারন মানুষ। তিনি অভিযোগ করে বলেন, নির্বাচনের আগের দিন দূবৃর্ত্তরা আওয়ামীলীগের কর্মীদের কয়েকটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়। গাড়ি পোড়ানোর মামলার আসামী করা হয় বিএনপির নেতাকর্মী ও সাধারন মানুষকে। আওয়ামীলীগের মাহাবুব ও ছাত্রলীগের নেতা রনি এলাকায় সরকারি গাছসহ নানা রকম অপকর্ম করে বেড়াচ্ছে।

অভিযুক্ত আওয়ামীলীগের নেতা মাহাবুবেরর সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মাহাবুবের ছোট ভাই ছাত্রলীগের নেতা আসাদুজ্জামান রনি মুঠো ফোনে জানান, কর্তনকৃত গাছ গুলো সরকারি না ক্লাবের সামনের তাই কাটা হয়েছে। এলাকায় কোন মানুষকে ভয় ও সরকার দলীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করা হয় না বলেও জানান তিনি। এ সময় গাছ কাটার বিষয়ে নিউজ না করারও অনুরোধ করেন তিনি।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সানোয়ার পারভেজ পুলক জানান, ছাত্রলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে কোন নেতা-কর্মী যদি ক্ষমতার অপব্যবহার করে সংগঠনের নাম ব্যবহার করে তাহলে সাংগঠনিক ব্যবস্খা গ্রহন করা হবে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি অরুনাংশু দত্ত টিটো জানান, আওয়ামীলীগ একটি সুশৃঙ্খল দল। কেউ যদি দলের নাম ব্যবহার করে অপকর্মের সাথে জড়িত থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশিকুর রহমান জানান, বড়গাঁও ইউনিয়নে গাছ কাটা বা মানুষকে ভয়ভীতি দেখানো হয়েছে এমন অভিযোগ থানায় কেউ করেনি। যদি কোন প্রকার অভিযোগ পাওয়া যায় তাহলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com