তেতুলিয়ায় মসজিদ নির্মাণ কাজ বন্ধ,ছাত্রলীগ নেতার ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী

শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪:৫৯ অপরাহ্ণ |

তেতুলিয়ায় মসজিদ নির্মাণ কাজ বন্ধ,ছাত্রলীগ নেতার ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী
প্রতিনিধির পাঠানো তথ্য ও ছবিতে ডেস্ক রিপোর্ট

ছাত্রলীগ নেতার ২০লাখ টাকা চাঁদা দাবী,টাকা না দেওয়ায় বন্ধ হয়ে গেছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজ। ২০ লাখ টাকা চাঁঁদা না পেয়ে তেঁতুলিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাসফিকুর রহমান সাকিব অনুসারীদের নিয়ে ভাংচুর ও মারপিটের পর কাজ বন্ধ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ সংশ্লিষ্টদের।

সূত্র থেকে জানা যায়, সারা দেশে ৫৬০ টি মডেল মসজিদ নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ করেছে সরকার। এর মধ্যে পঞ্চগড় তেঁতুলিয়া উপজেলা সদরে হচ্ছে একটি মডেল মসজিদ। ডাঙ্গীবস্তি এলাকায় ৫০ শতক জমির উপর শুরু হয়েছে মসজিদের নির্মাণ কাজ। গণপূর্ত বিভাগের অধিনে ১২ কোটি ৪৪ লাখ টাকা ব্যয়ে তিন তলা মসজিদ নির্মাণে নিযুক্ত করা হয়েছে ঠিকাদার। রংপুরের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নর্দান টেকনো ট্রেড কাজ শুরু করতে গিয়েই বাধার মুখে পড়ে স্থানীয় আওয়ামীলীগ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যন কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু ও তার ভাতিজা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাকিবের।


ঠিকাদার নাজমুল হক বলেন, ‘ছাত্রলীগ নেতা সাকিব ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেছেন। আমরা তা দিতে অস্বীকার করায় বার বার কাজ বন্ধ করে দিচ্ছেন। বুধবার কাজ বন্ধ করে দিলে রাতেই আমি রংপুর থেকে তেঁতুলিয়ায় আসি। গত বৃহস্পতিবার সকালে আমরা মডেল মসজিদের ভিত্তি ঢালাইয়ের প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। কিন্তু কাজ শুরু হতেই সাকিব তার ২০/২৫ জন সহযোগী নিয়ে হাজির হন। কাজ শুরু করার অনুমতি দিলো কে ? এমন কথা বলেই ভাংচুর শুরু করেন। আমরা বোঝানোর চেষ্টা করলে তারা ক্ষুব্ধ হয়ে লোকজনসহ আমাকে মারধর করেন। আমরা এ ঘটনায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনাসহ আইনী ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায় তেতুলিয়া উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রভাব খাটিয়ে পরিবেশ ধ্বংস কারী ড্রেজার মেশিনের মুল হোতা উপজেলা চেয়ারম্যান। দৈনিক বা সাপ্তাহিক লাখ লাখ টাকা নিত ড্রেজার মালিকদের কাছে। এছাড়া জমি দখল,টেন্ডার বাজী,সরকারি চাল গম নামে, বেনামী প্রকল্পের নামে আত্মসাৎ সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ বানিজ্য করে কোটি কোটি টাকা কামিয়েছেন। স্থানীয়রা জানায় ছাত্রলীগ নেতা ভাতিজা সাকিব কে ব্যবহার করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান এ সব অপকর্ম করছে।

প্রকল্প প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘তাদের চাঁদা না দেয়ায় হামলা হয়। ঠিকাদার ও আমাদের লোকজনদের মারধর করেছেন। আবার কাজ শুরু করলে আমাদের সিমেন্টের সাথে বেঁধে ঢালাই করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন।’

সাইট ইঞ্জিনিয়ার নিজাম উদ্দিন জানান, হামলাকারীরা অস্থায়ী ঘর ও চেয়ার টেবিলসহ বিভিন্ন জিনিস ভাংচুর করেন। ঠিকাদার নাজমুল হকসহ কর্মীদের মারধর করেন ছাত্রলীগ নেতা সাকিব ও তার সহযোগিতারা। এ সময় ভিডিও ধারণ করায় ঠিকাদারের গাড়ি চালকের মোবাইল ফোনটি নিয়ে নেন তারা। পরে চাঁদা না দেয়া পর্যন্ত কাজ করতে দেয়া হবে না বলে হুশিয়ারি দেন।

তেঁতুলিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাসফিকুর রহমান সাকিব বলেন, ‘আমরা কোথাও চাঁদাবাজি করিনি। আমি কর্মীদের কাজের ব্যবস্থা করতে চেয়েছিলাম। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান যেসব অভিযোগ করছে তা বানোয়াট।’

জেলা গণপূর্ত বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী সাফী মণ্ডল বলেন,’ঢালাইয়ের কাজের জন্য আমি ঘটনার সময় সেখানেই ছিলাম। আমার সামনেই স্থানীয় কিছু যুবক হামলা করে কাজ বন্ধ করে দেয়। তারা ঠিকাদারসহ লোকজনদের মারধর করে। বিষয়টি আমি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি।’

তেঁতুলিয়া থানার ওসি জহুরুল ইসলাম বলেন, ‘ঘটনাটি শোনার পর আমি নিজে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। তবে কেউ লিখিত অভিযোগ দেননি। মামলা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তেতুলিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলুর সাথে মোবাইল ফোনে কথা বললে তিনি তার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে,ব্যস্ততা দেখিয়ে ফোন কেটে দেয়।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments



যোগ্যতাই যখন বড় অযোগ্যতা

প্রধান কার্যালয়ঃ বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com