নওগাঁয় ধর্ষন মামলার আসামীকে আটক না করায় শঙ্কিত ভুক্তভুগিরা… ভয়ে বিদ্যালয়ে যেতে পারছে না শিক্ষার্থী

মঙ্গলবার, ০৫ নভেম্বর ২০১৯ | ১২:২৭ অপরাহ্ণ |

নওগাঁয় ধর্ষন মামলার আসামীকে আটক না করায় শঙ্কিত ভুক্তভুগিরা… ভয়ে বিদ্যালয়ে যেতে পারছে না শিক্ষার্থী
প্রতিনিধির পাঠানো তথ্য ও ছবিতে ডেস্ক রিপোর্ট

নওগাঁ প্রতিনিধি:

নওগাঁর মান্দা উপজেলার চকচম্পক ছোট নিম্ম মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী বয়স ১৫বছর। দেখতে অনেকটাই হাবাগোবার মতো। কথা খুবই কম বলে । তার শিক্ষক আমিনুল ইসলাম সকালে তার বাসায় প্রাইভেট পড়ানোর সময় জোরপূর্বক ধর্ষন করে।


এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করার ১৪দিন পার হলেও এখনো শিক্ষককে আটক না করায় সুষ্ঠু বিচার পাওয়া নিয়ে শঙ্কিত ভুক্তভুগির পরিবার। এছাড়াও প্রভাবশালী দাদন ব্যবসায়ী শিক্ষক ঘটনার পর থেকে পলাতক থাকলেও তার লোক জনের দেওয়া বিভিন্ন হুমকি-ধামকীতে মেয়েটি বিদ্যালয়ে যেতে পারছে না। তাই বর্তমানে গরীব এই পরিবারটি মেয়েকে নিয়ে চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, জেলার মান্দা উপজেলার চকচম্পক হিন্দুপাড়া গ্রামের মেয়ে। মা অন্যের বাড়িতে কাজ
করে আর বাবা বগুড়ায় একটি ওষুধের দোকানে চাকরী করেন। অনেক কষ্টে দিন চলে এই পরিবারের। ছোটবেলা থেকেই  মেয়েটি সবার সঙ্গে কথা কম বলে।

অনেকটাই সে শারীরিক ভাবে একটু দুর্বল বলে মনে হয়। বাড়ির পাশে বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করে। সেই বিদ্যালয়ের গণিত ও বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক আমিনুল ইসলামের কাছে তার বাসায় প্রাইভেট পড়তো। গত ১৮-১০-১৯ইং তারিখে বাড়ির পাশে শিক্ষকের বাড়িতে সকালে প্রাইভেট পড়তে গেলে শিক্ষক কৌশলে পরিত্যক্ত ৩য় তলায় নিয়ে গিয়ে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ
করে। পরদিন মেয়েটি তার পরিবারকে জানালে বিষয়টি সবাই জানতে পারে। এদিকে ঘটনার পরদিন থেকে শিক্ষক আমিনুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন।

অনেক ঘটনার পর থানা পুলিশ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা গ্রহণ করে গত ২১-১০-১৯ তারিখে (মামলা নং ৩৭২৭(৩)/১, তাং ২২-১০-১৯)। এদিকে মামলা করার পর থেকে প্রভাবশালী দাদন ব্যবসায়ী শিক্ষক আমিনুল ইসলামের লোকজনের বিভিন্ন ভয়-ভীতি ও হুমকি-ধামকীতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে মেয়েটি ও তার গরীব বাবা-মা। তাদের ভয়-
ভীতির কারণে সে বিদ্যালয়ে যেতে পারছে না। তাই বর্তমানে এই পরিবারটি সুষ্ঠু বিচার পাওয়া নিয়ে শঙ্কিত রয়েছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক বিষ্ণুপদ প্রামাণিক, সুবল কুমার সরকারসহ অনেকেই বলেন, শিক্ষক সমাজ মানুষ গড়ার কারিগর। আর সেই শিক্ষক যদি ধর্ষক হয় তাহলে সমাজের মানুষ কোথায় যাবে। এই শিক্ষক আগেও এধরনের অনেক ঘটনা ঘটিয়েছে। সেগুলো টাকার মাধ্যমে সমাধান করেছেন। বর্তমানে শিক্ষকের যে স্ত্রী বর্তমান রয়েছে সেও এই শিক্ষকের
ছাত্রী ছিলো অনৈতিক কাজের অপরাধে তাকে বিয়ে করতে হয়েছে। শিক্ষক আমিনুল ইসলাম গরীব এই মেয়ের যে সর্বনাশ করেছে আমরা তার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই যা সমাজে এক নজির হয়ে থাকবে।

শিক্ষার্থী মেয়েটি জানায় প্রতিদিনের মতো ওই দিন সকালে আমি শিক্ষকের বাসায় পড়তে যাই। গিয়ে দেখি আমার অন্যান্য সহপাঠিরা আসেনি। শিক্ষক আমাকে বললেন ৩য় তলায় চলো। আজ তোমাদের ৩য় তলায় পড়াবো। এরপর শিক্ষক ৩য় তলায় নিয়ে গিয়ে ঘরের জানালা-দোরজা বন্ধ করে দেয়।

আমার নিষেধ তিনি শোনেন না। জোর করে আমাকে ধর্ষন করে। এরপর তিনি আমাকে ভয় দেখান যে আমি যেন বিষয়টি কাউকে না বলি। তাহলে তিনি আমার পড়ালেখার খরচসহ যাবতীয় খরচ বহন করবেন।

মেয়েটির মা  জানান আমরা গরীব মানুষ। আমি মানুষের বাড়িতে কাজ করে সংসার চালাই। আমার মেয়ে অনেকটাই
হাবাগোবা ধরণের। কথা কম বলে। সেই মেয়ের প্রতি শিক্ষক যে বর্বর নির্যাতন করেছে তার উপযুক্ত শাস্তি চাই। কিন্তু মামলা করার অনেক দিন পার হলেও পুলিশ এখনো ধর্ষককে আটক করতে পারেনি। এদিকে শিক্ষকের লোকজন প্রতিনিয়তই আমাদেরকে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি-ধামকীসহ নানা রকমের ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে। ভয়-ভীতির কারনে মেয়েকে স্কুলে পাঠাতে পারছি না। আমরা বর্তমানে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি।

চকচম্পক ছোট নিন্ম মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রহিদুল ইসলাম বলেন শিক্ষক আমিনুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়ার পরই বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা তাকে বিদ্যালয় থেকে সাময়িক ভাবে বহিস্কার করেছে। আর আমিনুল ইসলাম যদি সত্যিই এধরনের কাজ করে থাকে তাহলে আমরা তার দৃষ্টান্তরমূলক শাস্তি চাই।

নওগাঁ পুলিশ সুপার প্রকৌশলী মো: আব্দুল মান্নান মিয়া বলেন আমরা ঘটনার তদন্ত অব্যাহত রেখেছি। আর দুপক্ষ থেকে দুরকম তথ্য পাওয়ায় মামলাটি সর্তকতার সঙ্গে তদন্ত করা হচ্ছে। ডাক্তারী পরীক্ষার সনদপত্র এখনো পাওয়া যায় নাই। ডাক্তারী পরীক্ষার ফলাফল পাওয়া গেলেই ঘটনার সত্যতা জানা যাবে। আর সত্যতা পাওয়া গেলে অবশ্যই মূল আসামীকে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments



ঠাকুরগাঁওয়ে খাদ্য নিয়ন্ত্রক-পিআইও-ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৬ জন আটক….

প্রধান কার্যালয়ঃ বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com