বন্ধুকে হত্যার দায়ে বন্ধু আটক

শনিবার, ০৯ মার্চ ২০১৯ | ১১:৪১ অপরাহ্ণ |

বন্ধুকে হত্যার দায়ে বন্ধু আটক
বন্ধুকে হত্যার দায়ে বন্ধু আটক

প্রেম নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে মেহেরাজ (১৯) নামক এক বন্ধুকে তিন বন্ধু সহযোগে তুলে নিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। কোমল পানীয়ের সঙ্গে চেতনানাশক ট্যাবলেট খাইয়ে তিন বন্ধু মিলে পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটায়। পরে বস্তায় ভরে মরদেহটি মোটরসাইকেলযোগে লক্ষ্মীপুরের পূর্ব সৈয়দপুর এনে খালে ফেলে দেয়। তিন দিন পর মরদেহটি খালে ভেসে উঠলে পুলিশ উদ্ধার করে।

পুলিশের তদন্ত পূর্বক অভিযানে এ ঘটনার মূলহোতা আবদুল্লাহ আল মামুন আটক হয়। আটককৃত মামুন বুধবার দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা জজ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এযেন প্রেমের “মরা” জলে ডুবেনা…কথার বাস্তবরূপ। এ ঘটনায় তার সহযোগী অপর দুই বন্ধু হলো তানভীর ও রাশেদ।

webnewsdesign.com

নিহত মেহেরাজ নোয়াখালীর সুধারাম থানার উত্তর হুবলি গ্রামের মো. শাহজাহানের ছেলে। এর আগে সোমবার (৪ মার্চ) রাতে নোয়াখালীর সুধারাম এলাকা থেকে মামুনকে আটক করা হয়। এ সময় তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী হত্যার সময় ব্যবহার হওয়া মোটরসাইকেলটি জব্দ করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, মেহেরাজ, তানভীর ও মামুন নোয়াখালীর সুধারাম এলাকার বাসিন্দা। তারা তিনজন ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিল। স্থানীয় এক মেয়ের সঙ্গে প্রেম নিয়ে তানভীর ও মেহেরাজের মধ্যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতের তানভীর তাকে (মেহেরাজ) হত্যার পরিকল্পনা করে।

এ কথা সে তার (তানভীর) বন্ধু মামুন ও রাশেদকে জানায়। তানভীর ও মামুন সুধারাম থানার উদয় সাধুর হাটের সততা বস্ত্রালয়ের কর্মচারী। পরিকল্পনা অনুযায়ী তারা গত ২৪ ফেব্রুয়ারি বিকেলে মোটরসাইকেলযোগে মেহেরাজকে নিয়ে মুন্সি তালক গ্রামের দিকে যায়। সন্ধ্যা হলে মেহেরাজকে তারা কোমল পানীয়ের সঙ্গে চেতনানাশক ট্যাবলেট মিশিয়ে খাইয়ে দেয়।

এর কিছুক্ষণের মধ্যেই সে অচেতন হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে পরনের বেল্ট খুলে গলায় পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করা হয়। পরে মরদেহ প্লাস্টিকের বস্তায় ভরে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার পূর্ব সৈয়দপুর গ্রামের টক্কার পুল থেকে খালে ফেলে দেয় তারা। ২৮ ফেব্রুয়ারি বস্তাবন্দি মরদেহটি পানিতে ভেসে উঠলে পুলিশ সেটি উদ্ধার করে।

লক্ষ্মীপুরের সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আনোয়ার হোসেন বলেন, প্রেমের দ্বন্দ্বের কারণে তিন বন্ধু মিলে পরিকল্পিতভাবে মেহেরাজকে হত্যা করে। হত্যার ঘটনায় জড়িত আসামি মামুন লক্ষ্মীপুর আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com