বালিয়াডাঙ্গীর গিয়াস উদ্দীন আশি বছরেও বয়স্ক ভাতা পাইনি

মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ | ৫:৫৬ অপরাহ্ণ |

বালিয়াডাঙ্গীর গিয়াস উদ্দীন আশি বছরেও বয়স্ক ভাতা পাইনি

বালিয়াডাঙ্গী (ঠাকুরগাঁও) সংবাদদাতা : মি (আমি) আর ক’দিন বাঁচিম, মি (আমার) আশি বছরেও এক খান বয়স্ক ভাতার কার্ড পানুনি। বয়স্ক ভাতার কার্ডকি কবরত লেজাম”- আ লিক ভাষায় কথাগুলো বলছিলেন আশি বছরর্ধ্বো অসুস্থ বৃদ্ধ গিয়াস উদ্দীন। গত ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে তার নাম বয়স্ক ভাতার অপেক্ষামান তালিকায় থাকলেও রহস্যজনক কারণে তার নাম বাদ পরেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
তিনি ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের লালাপুর জংগলবাড়ী গ্রামের মৃত হসরত আলীর ছেলে গিয়াস উদ্দীন ওরফে নুনু। তার ৭ ছেলে ২ মেয়ে। বড় ছেলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। বাকী ৬ ছেলে দিন মুজুর। মেয়েদের অনেক আগে বিয়ে দিয়েছেন। ছেলে মেয়েরা নিজ নিজ সংসারে ব্যস্ত। স্বামী-স্ত্রী খুব কষ্ট করে চলেন। বয়সের ভারে শরীরে নানা রোগ বাসা বেধেছে দু’জনের। ১০বছর যাবৎ শ্বাসকষ্টে হাটাহাটি করতে পারে না গিয়াস উদ্দীন। গ্রামে ছোট একটি দোকান এটিই স্বামী-স্ত্রীর একমাত্র চলার পথ। এ দোকানের উপর খাওয়া খরচ ও ঔষধ ক্রয় করা কঠিন হয়ে পরেছে তার।
বয়স্ক ভাতা পাবার আশাই গত বছর গৃহায়ণ ও গণপুর্ত মন্ত্রনালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মো. দবিরুল ইসলাম এমপি’র সুপারিশ নিয়ে সমাজসেবা অফিসে জমা করেও তেমন কোন ফল হয়নি।
দুওসুও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য রাসেদুজ্জামান জানান, বয়সের কারনেই তার নাম আমাদের বয়স্ক ভাতার তালিকায় রাখা হয়েছে।
দুওসুও চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম জানান, আমি ইউপি সদস্যের সংগে কথা বলে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়ার ব্যবস্থা করে দিব।
উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো. মোজাহারুল ইসলাম জানান, গিয়াস উদ্দীন বয়স অনুযায়ী তিনি বয়স্ক ভাতার কার্ড পাওয়ার যোগ্য বলে আমি মনে করি। কিছু দিন আগে এমপি মহোদয়ের সুপারিশসহ আমার দপ্তরে একটি আবেদন পেয়েছি। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে বলে আমি ব্যবস্থা করার চেষ্টা করব।আশি বছরেও বয়স্ক ভাতা পাইনি ঠাকুরগাঁওয়ের গিয়াস উদ্দীন
মি (আমি) আর ক’দিন বাঁচিম, মি (আমার) আশি বছরেও এক খান বয়স্ক ভাতার কার্ড পানুনি। বয়স্ক ভাতার কার্ডকি কবরত লেজাম”- আ লিক ভাষায় কথাগুলো বলছিলেন আশি বছরর্ধ্বো অসুস্থ বৃদ্ধ গিয়াস উদ্দীন। গত ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে তার নাম বয়স্ক ভাতার অপেক্ষামান তালিকায় থাকলেও রহস্যজনক কারণে তার নাম বাদ পরেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
তিনি ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের লালাপুর জংগলবাড়ী গ্রামের মৃত হসরত আলীর ছেলে গিয়াস উদ্দীন ওরফে নুনু। তার ৭ ছেলে ২ মেয়ে। বড় ছেলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। বাকী ৬ ছেলে দিন মুজুর। মেয়েদের অনেক আগে বিয়ে দিয়েছেন। ছেলে মেয়েরা নিজ নিজ সংসারে ব্যস্ত। স্বামী-স্ত্রী খুব কষ্ট করে চলেন। বয়সের ভারে শরীরে নানা রোগ বাসা বেধেছে দু’জনের। ১০বছর যাবৎ শ্বাসকষ্টে হাটাহাটি করতে পারে না গিয়াস উদ্দীন। গ্রামে ছোট একটি দোকান এটিই স্বামী-স্ত্রীর একমাত্র চলার পথ। এ দোকানের উপর খাওয়া খরচ ও ঔষধ ক্রয় করা কঠিন হয়ে পরেছে তার।
বয়স্ক ভাতা পাবার আশাই গত বছর গৃহায়ণ ও গণপুর্ত মন্ত্রনালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মো. দবিরুল ইসলাম এমপি’র সুপারিশ নিয়ে সমাজসেবা অফিসে জমা করেও তেমন কোন ফল হয়নি।
দুওসুও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য রাসেদুজ্জামান জানান, বয়সের কারনেই তার নাম আমাদের বয়স্ক ভাতার তালিকায় রাখা হয়েছে।
দুওসুও চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম জানান, আমি ইউপি সদস্যের সংগে কথা বলে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়ার ব্যবস্থা করে দিব।
উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো. মোজাহারুল ইসলাম জানান, গিয়াস উদ্দীন বয়স অনুযায়ী তিনি বয়স্ক ভাতার কার্ড পাওয়ার যোগ্য বলে আমি মনে করি। কিছু দিন আগে এমপি মহোদয়ের সুপারিশসহ আমার দপ্তরে একটি আবেদন পেয়েছি। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে বলে আমি ব্যবস্থা করার চেষ্টা করব।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

ঠাকুরগাঁওয়ে দন্দ্বের জেরে সংঘর্ষে আহত-৫, হাসপাতালে ভর্তি…

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com