বিমান বিধ্বস্তে ৮ মরদেহ শনাক্ত- বাকিদের জন্য অপেক্ষা

বৃহস্পতিবার, ১৫ মার্চ ২০১৮ | ৮:৩৪ পূর্বাহ্ণ |

বিমান বিধ্বস্তে ৮ মরদেহ শনাক্ত- বাকিদের জন্য অপেক্ষা
বিমান বিধ্বস্তে ৮ মরদেহ শনাক্ত- বাকিদের জন্য অপেক্ষা

ত্রিভুবনের আকাশে ঢুকতেই যাত্রীরা যেন নড়েচড়ে বসে। সবারই চোখ বাইরের দিকে।

অনেকেরই চোখেমুখে ভয়ের ছাপ। কেউ কেউ একে অন্যকে বলেই ফেলল, ‘সাবধান। দুই ক্রু পরিস্থিতি বুঝতে পেরে কাছে এসে বললেন, ভয়ের কিছু নেই। সব ঠিক আছে। পেছনের দিকের এক যাত্রী বেশ জোরেই চেঁচিয়ে বাংলায় বলে উঠলেন, ইউএস-বাংলা বিমানের ক্রুরাও হয়তো এমনভাবেই অভয় দিয়েছিলেন যাত্রীদের। আরেকজন বলেন, ‘জানি না, আরেকটু পর আমরাও পৃথুলাদের মতো পুড়ে কয়লা হয়ে যাব কি না!’ এমন করতে করতেই গতকাল বুধবার দুপুরে কাঠমাণ্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়েতে চাকা পড়ে এয়ার ইন্ডিয়ার উড়োজাহাজটির।

webnewsdesign.com

এ সময় সবাই উঁকিঝুঁকি মেরে জানালা দিয়ে খুঁজতে শুরু করে গত সোমবার এই বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজের ধ্বংসাবশেষ। রানওয়ে থেকে টার্মিনাল ভবনে এসেও সবাই বিমানবন্দরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের খোঁজখবর নিতে থাকে।

তবে ওই খোঁজখবরের চেয়েও অনেক বেশি মাত্রায় উৎকণ্ঠা নিয়ে কাঠমাণ্ডু মেডিক্যাল কলেজের মর্গে থাকা নিহত যাত্রীদের স্বজনরা পার করছে সময়।

ঘটনার তিন দিন পার হলেও লাশ দেখতে পারেনি স্বজনরা, যা নিয়ে বাংলাদেশ থেকে আসা স্বজনদের মধ্যে চলছে অসন্তোষ।

এদিকে কাঠমাণ্ডু মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বাংলাদেশি ১০ জনের মধ্যে কমপক্ষে চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন ওই হাসপাতালের চিকিৎসক। গতকাল দুপুরের পর ওই হাসপাতালে গিয়ে আইসিইউতে থাকা আহত যাত্রীদের স্বজনদের ভিড় দেখা যায়। তবে সেখানে বাংলাদেশের স্বজনদের উপস্থিতি ছিল কম।

অন্যদিকে বার্ন ইউনিটে গিয়ে দেখা যায়, একই কক্ষের দুই বেডের একটিতে মো. শাহীন ব্যাপারী এবং আরেকটিতে রয়েছেন শাহরিন আহমেদ। শাহীনের মুখমণ্ডল ছাড়া শরীরের পুরো অংশই ব্যান্ডেজ করা। ডিউটি ডাক্তার প্রভিদা কালের কণ্ঠকে বলেন, শাহীনের শরীরের ৩০-৩৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। তাঁর পিঠের মাংস প্রায় সবটাই ফেলে দিতে হবে। অন্যদিকে শাহরিনের শরীরের ৭-৮ শতাংশ পুড়েছে বলে জানান বাংলাদেশে একটি প্রাইভেট মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করা ওই নেপালি ডাক্তার।

শাহীন ব্যাপারী কালের কণ্ঠকে বলেন, তিনি ছিলেন উড়োজাহাজটির এ-১ সিটে। দুর্ঘটনার পর দ্রুত বেরিয়ে আসতে গেলে এক পা আটকে যায়। পরে অনেক চেষ্টা করে কিভাবে বেরিয়েছেন তা আর তিনি মনে করতে পারছেন না। শাহরিন আহমেদ বলেন, ‘কী হয়েছিল আর মনে করতে চাই না। আমার বন্ধু রাশেদ রুবায়েতের কী অবস্থা তা নিয়েই আমি বেশি চিন্তিত। আমার যা হয় হোক।

এদিকে বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে গতকাল সন্ধ্যায় জানানো হয়, তখন পর্যন্ত ১০ জন বাংলাদেশি জীবিত যাত্রী কাঠমাণ্ডুর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সন্ধ্যায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক আনোয়ার হোসেন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি বাংলাদেশিদের লাশগুলো তাদের স্বজনদের দেখতে দেওয়ার জন্য। কিন্তু নেপাল কর্তৃপক্ষ সিরিয়াল ভেঙে তা করতে চায় না।

সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় হাসপাতালে থাকা আহতদের স্বজনরা ভিড় করে ছিল কাঠমাণ্ডুর বসুন্ধরা এলাকায় বাংলাদেশ দূতাবাসে। বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শামসি বিনতে শামসও দূতাবাসে অবস্থান করে তাদের সঙ্গে কথা বলছেন। তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমরা স্বজনদের মনোভাব, আবেগকে সবার আগে গুরুত্ব দিতে চাই। তাদের প্রাইভেসিকে গুরুত্ব দিতে হবে। রাষ্ট্রদূত এ সময় মিডিয়ার তথ্য বিভ্রান্তি নিয়ে কিছুটা অসন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি অনুরোধ করে বলেন, আগে স্বজনদের অবস্থাকে সম্মান করুন।

আট লাশ শনাক্ত : নেপালে অবস্থানরত বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল বলেছেন, বাংলাদেশের নিহতদের মধ্যে আটজনকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। আগুনে পুড়ে যাওয়ায় বাকিদের পরিচয় শনাক্ত করতে ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে। দেশে লাশ নিয়ে যেতে আরো তিন-চার দিন লাগতে পারে। নেপালের একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সিভিল এভিয়েশনের গঠিত তদন্ত কমিটির সদস্যরা কাঠমাণ্ডুতে গিয়ে তদন্তে সহায়তার কাজ শুরু করে দিয়েছেন। বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলছেন। উড়োজাহাজটি ত্রিভুবন বিমানবন্দরের কাছাকাছি যাওয়ার পর কী ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল তা যাত্রীদের কাছ থেকে জানার চেষ্টা করছেন। ব্ল্যাক বক্সের তথ্য উদ্ধারের জন্য সেটি কানাডা পাঠানো হচ্ছে বলে কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন সিভিল এভিয়েশনের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা। বর্তমানে কাঠমাণ্ডুতে আছেন সিভিল এভিয়েশনের মেম্বার (অপারেশন) এয়ার কমোডর মোস্তাফিজুর রহমান, পরিচালক (ফ্লাইট সেফটি অ্যান্ড রেগুলেশন) উইং কমান্ডার জিয়াউল কবির, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন ইকবাল করিমসহ সিভিল এভিয়েশনের একাধিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

নেপালে বাংলাদেশি এক সংবাদকর্মী কালের কণ্ঠকে বলেন, নেপালে আসা নিহত-আহতের স্বজনদের থাকা-খাওয়ার সমস্যা হলেও ইউএস-বাংলা এ ব্যাপারে আন্তরিকভাবে সহযোগিতা করছে। তবে লাশ দেখতে না পেয়ে তারা ক্ষুব্ধ।

আজ মেডিক্যাল টিম যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশ থেকে সাত সদস্যের একটি মেডিক্যাল টিম নেপাল যাচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্তলাল সেন সাংবাদিকদের বলেন, সার্জারি ইউনিটের তিনজন, আইসিইউর দুজন ও জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতালের দুজনসহ মোট সাতজনের টিম আজ সকাল ১১টার দিকে কাঠমাণ্ডুর উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বে।

পাইলটকে চাপ দেওয়া হয়নি : গতকাল দুপুরে সিভিল এভিয়েশন কার্যালয়ে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান এয়ারভাইস মার্শাল নাঈম হাসান সাংবাদিকদের বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত ফ্লাইটটির পাইলট আবিদ সুলতানকে কোনো ধরনের চাপ দেওয়া হয়নি। আর কাউকে কেউ চাপ দিয়ে ফ্লাইট চালাতে পারে না। যে কেউ যেকোনো প্রতিষ্ঠান থেকে পদত্যাগ করতে পারেন। আবিদ সুলতান ইউএস-বাংলা থেকে পদত্যাগ করেছিলেন কি না তা তাঁর জানা নেই। তিনি বলেন, ‘বিধ্বস্ত উড়োজাহাজটি পুরনো নয়। ২০০১ সালে এটি তৈরি। এই পর্যন্ত উড়োজাহাজটি ১৯ হাজার ঘণ্টা উড়েছে। আর এটির ওড়ার ক্ষমতা আছে ৮০ হাজার ঘণ্টা। এ থেকে বোঝা যায়, উড়োজাহাজটির কোনো সমস্যা ছিল না। এর পরও আমরা তদন্ত করছি। ’ তিনি আরো বলেন, ‘প্রাইভেট এয়ারলাইনসগুলো পাইলটদের বেশি ডিউটি করাচ্ছে কি না জানি না। এগুলো মনিটর করার জন্য আমরা কাজ করছি।

চীনা প্রেসিডেন্ট, জাতিসংঘ মহাসচিবের শোক : কাঠমাণ্ডুতে বাংলাদেশি উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় অর্ধশতাধিক প্রাণহানিতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং ও জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদকে পাঠানো শোকবার্তায় চীনা প্রেসিডেন্ট তাঁর দেশের জনগণ, সরকার ও নিজের পক্ষে গভীর দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি নিহতদের স্বজনদের প্রতি সমবেদনা জানান এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেনকে পাঠানো এক বার্তায় বাংলাদেশের জনগণ, সরকার এবং হতাহতদের পরিবারগুলোকে গভীর সমবেদনা জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশের এই কঠিন সময়ে পুরো জাতিসংঘ পরিবারই শোকাচ্ছন্ন।

নাবিলার লাশ শনাক্তে মায়ের ডিএনএ সংগ্রহ হচ্ছে : উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হয়ে নিহত কেবিন ক্রু শারমিন আক্তার নাবিলার লাশ শনাক্তে তাঁর মায়ের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহের প্রক্রিয়া চলছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। নাবিলার মা নীলা জামানের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহের বিষয়ে ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেছে।

সোমবার ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হয়ে যাত্রীদের সঙ্গে চার ক্রুও নিহত হন; তাঁদেরই একজন নাবিলা বলে এয়ারলাইনসটির জনসংযোগ বিভাগের কর্মকর্তা শেখ মো. সাদী শিশির জানিয়েছেন। এদিকে নাবিলার মৃত্যুর খবর পেয়ে তাঁর স্বামীর দুই ভাই বেল্লাল হোসেন ও ইমাম হোসেন কাঠমাণ্ডু গেছেন।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

ঠাকুরগাঁওয়ে ভূমিহীনদের ভূমি ও গৃহ প্রদান উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন…

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com