রাজশাহীতে আগাম আলু চাষে বাম্পার ফলন, লাভবান কৃষকরা

রবিবার, ১৪ জানুয়ারি ২০১৮ | ১:১৩ অপরাহ্ণ |

রাজশাহীতে আগাম আলু চাষে বাম্পার ফলন, লাভবান কৃষকরা
আলুর ক্ষেত

রাজশাহীর বাঘায় এ বছর শীত মৌসুমে আগাম আলু চাষ করে বাম্পার ফলন পেতে চলেছে আলু চাষিরা। বিশেষ করে উপজেলার দুর্গম পদ্মার চরাঞ্চল সহ সমতল এলাকার শত-শত কৃষক এবার আলু চাষে ভাল দাম পাওয়ায় আলু চাষাবাদে আগ্রহী হচ্ছেন। তারা বলছেন, গত বছর আলুর ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় এ বছর অনেকেই আলু নিয়ে আতঙ্কে ছিল। কিন্তু এবার বাজার মূল্য ভাল হওয়ায় সবাই আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর বাঘা উপজেলায় আলু চাষের লক্ষমাত্রা ছিল প্রায় দুই হাজার হেক্টর। যা অতিক্রম করে চাষাবাদ হয়েছে আড়াই থেকে তিন হাজার হেক্টর। এরমধ্যে অর্ধেক এর বেশি লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল পদ্মার চরাঞ্চলে। সে মোতাবেক চরবাসীদের অনেকেই আগাম আলুচাষ করে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হচ্ছেন। তাদের দেয়া তথ্য মতে, বাঘার চরাঞ্চলের আলুর গুণগত মান ভাল। এ কারণে এখান থেকে প্রতি আলু মৌসুমে আলু চালান দেয়া হয় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে।

webnewsdesign.com

বাঘার চরাঞ্চলের কৃষক বাবলু দেওয়ান জানান, তিনি এ বছর পাঁচ বিঘা জমিতে আগাম আলু চাষ করে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন। এর কারণ হিসাবে তিনি বলেন, এ বছর একদিকে যেমন আলুর বাজার ভাল অন্য দিকে ফলনও আশানুরূপ। অনুরূপ কথা বলেন, সমতল এলাকার বাউসা গ্রামের কৃষক আব্দুল মালেক।

বাঘার চরাঞ্চলের চেয়ারম্যান আজিজুল আজম বলেন, উপজেলার সীমান্তবর্তী দুর্গম পদ্মার চরাঞ্চলকে এক কথায় সবজি ভান্ডার বলা হয়। কারণ এখানে এমন কোন সবজি নেই যা উৎপাদন হয় না। তার মতে, চরাঞ্চলে কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজ-রসুন থেকে শুরু করে আলু, বেগুন, টমেটো, গাজর, সিম, করলা, পুইসাক, লাও, মিষ্টি কুমড়া, ও মুলাসহ সকল প্রকার সবজি উৎপাদন হয় এবং এ সমস্ত উৎপাদিত পণ্য স্থানীয় চাহিদা পুরণের পাশাপাশি রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে রপ্তানি করা হয়।

বাঘা উপজেলার পাইকারি সবজি বিক্রেতা মানিক মিঞা বলেন, প্রতি বছর শীত মৌসুমে বাঘাসহ অত্র এলাকার বিভিন্ন হাটে সবজির দাম কমে যায় । এর প্রধান কারণ, এটি সবজি উৎপাদনমুখী এলাকা। তার মতে, এবার কৃষকরা আলুর ন্যায্য মুল্য পাচ্ছে। গত হাটে বাঘায় খুচরা মুল্য দেশী আলু ২৪ থেকে থেকে ২৫ টাকা এবং হল্যান্ডার আলু ২০ থেকে ২২ টাকায় বিক্রী হয়েছে বলে তিনি জানান।

সার্বিক বিষয়ে বাঘা উপজেলা অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা নাজনীন বেগম জানান, বাঘার মাটি কৃষি আবাদের জন্য অত্যন্ত উপযোগী। বিশেষ করে এই উপজেলার চরাঞ্চলে সবধরনের সবজির উৎপাদন ভাল হয়। এদিক থেকে এবার সমতল এলাকাতেও অনেক সবজি উৎপাদন হচ্ছে। তার মতে, এবার শীত মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অনেক বেশি আলু চাষাবাদ হয়েছে দুর্গম পদ্মার চরাঞ্চলে। তিনিসহ উপজেলা কৃষি বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তারা অত্র উপজেলায় সকল প্রকার সবজি চাষে কৃষকদের নানারকম পরামর্শ দিয়ে থাকেন বলে জানান।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com