স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক দেখে ফেলায় হত্যা করা হয় স্বামীকে

রাজশাহীতে প্রেমিকের সহযোগিতায় নিজের স্বামীকে হত্যা

বুধবার, ০৭ মার্চ ২০১৮ | ৫:১৭ অপরাহ্ণ |

রাজশাহীতে প্রেমিকের সহযোগিতায় নিজের স্বামীকে হত্যা
রাজশাহীতে প্রেমিকের সহযোগিতায় নিজের স্বামীকে হত্যা

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় আড়াই মাস পর একটি মৃত্যু রহস্য উদঘাটিত হয়েছে। স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক দেখে ফেলায় তৌহিদ নামের এক যুবককে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে স্ত্রী ও তার প্রেমিক। ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়া হয়।

কিন্তু ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে হত্যার আলামত পেয়ে নিহতের স্ত্রীকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেরিয়ে আসে মূল ঘটনা। এ ঘটনায় জড়িত পরকীয়া প্রেমিক ও স্ত্রীসহ তিন জনকে আটক করা হয়েছে।

webnewsdesign.com

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উপজেলার ভালুকগাছি ইউনিয়নের চকদোমাদি গ্রামের মমিন আলীর ছেলে সুমন আলী (২৪) ও তার ভাই সুজন আলী (২৫)। গত সোমবার সন্ধায় উপজেলার চকদোমাদি বাজার থেকে তাদের দুইজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর সকালে উপজেলার ভালুকগাছি ইউনিয়নের চকদোমাদি গ্রামের তৈয়ব আলীর ছেলে তৌহিদুল ইসলামের (২৪) গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় বাড়ির অদূরে আনছার মাস্টারের আম বাগানের একটি গাছের নিচে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে বাগান থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামে) হাসপাতালে প্রেরণ করে।

প্রাথমিকভাবে তিনি আত্মহত্যা করেছে ধারণা করা হলেও আত্মহত্যার কারণ যানা যায়নি। ওই সময় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হয়। তবে মৃত্যুর পর থেকেই পরিবার দাবি করে আসছিল তৌহিদকে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা ও শরীরে আঘাতের চিহ্নের কথা বলা হয়েছে।

ঘটনার আড়াই মাস পর গত সোমবার তৌহিদের চাচা সৈয়দ আলী বাদী হয়ে তিন জনকে আসামি করে পুঠিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার পর তৌহিদের স্ত্রী তাহমিনা খাতুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেরিয়ে আসে মৃত্যু রহস্য।

তাহমিনা খাতুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুঠিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাকিবুল হাসান বলেন, তৌহিদুলের প্রতিবেশী বন্ধু সুমনের সঙ্গে তার স্ত্রী তাহমিনা খাতুনের অবৈধ প্রেমের সর্ম্পক রয়েছে এবং তৌহিদের কাছ থেকে সুমন এক লাখ টাকাও ধার হিসেবে নেয় যা শুধু তার স্ত্রী তাহমিনা জানতো। সে সুবাদে সুমন প্রায়ই তৌহিদুলের বাসায় যাওয়া আসা করতো এবং তৌহিদুলের মৃত্যুর পরেও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তারা নিয়মিত যোগাযোগ করতো।

ঘটনার দিন গত ২২ ডিসেম্বর রাতে তাহমিনার সঙ্গে দেখা করতে সুমন তৌহিদুলের বাড়িতে যায়। এসময় তৌহিদ তাদের দুইজনের মধ্যে অবৈধ শারীরিক সর্ম্পক দেখে ফেলায় তাৎক্ষণিক তৌহিদুলকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। পরে তারা লাশটির গলায় ফাঁস দিয়ে বাড়ির অদূরে আম বাগানে একটি গাছের নিচে ফেলে আসে যাতে করে সবাই ধারণা করে তৌহিদুল ইসলাম আত্মহত্যা করেছে। তাদের সকল কাজে সহযোগিতা করেছে সুমনের ভাই সুজন আলী। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাহমিনা খাতুন এগুলো স্বীকারও করেছেন।

এ বিষয়ে পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সায়েদুর রহমান বলেন, তৌহিদুল ইসলামকে শ্বাসরোধ করে হত্যার সন্দেহে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের দুইজনকে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং তার স্ত্রী তাহমিনা খাতুনকে থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।#

 

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com