রাজশাহীতে বাহারি রঙিন ফুলের মেলা

মঙ্গলবার, ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ | ৬:০০ অপরাহ্ণ |

রাজশাহীতে বাহারি রঙিন ফুলের মেলা
ছবি: অনলাইন

বসন্ত এখনও আসেনি। কিন্তু ফুলের কমতি নেই মনিবাজারে। শীতের দেশি-বিদেশি নানা প্রজাতির ফুলের মেলা বসেছে এখানে। দর্শনার্থীদের নানা প্রজাতির ফুলের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতেই এই আয়োজন। ক্রীড়া সংগঠন ‘বৈকালী সংঘ’ প্রতিবছরের মতো এবারও ‘ওয়ান ব্যাংক পুষ্পমেলা’ শিরোনামে পাঁচ দিনের এই মেলার আয়োজন করেছে।

সোমবার সকালে মেলা উদ্বোধন করেন রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার একেএম হাফিজ আক্তার। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বেতারের ভারপ্রাপ্ত আঞ্চলিক পরিচালক হাসান আখতার, ওয়ান ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল মান্নান, বৈকালী সংঘের সভাপতি এওয়াইএম মনিরুজ্জামান এবং সাধারণ সম্পাদক রইস উদ্দিন আহমেদ বাবু।

webnewsdesign.com

আয়োজকদের দাবি, ফুল বিক্রি করা ওয়ান ব্যাংক পুষ্পমেলার উদ্দেশ্য নয়। ফুল সম্পর্কে সাধারণ মানুষের মাঝে আগ্রহ বেশি করে জাগিয়ে তোলাই উদ্দেশ্য। আবার শহুরে জীবনের গণ্ডি পেরিয়ে সামান্য সময়ের জন্য মানুষকে কিছুটা আনন্দ দেয়াও এ মেলা আয়োজনের অন্যতম লক্ষ্য। তাই ১৯৮৫ সাল থেকে এ মেলার আয়োজন করা হয়।

মেলার স্টলে স্টলে সাজানো রয়েছে নানা জাতের ফুলগাছ ও ফুল। দর্শনার্থীরা কেউ একটু হাত দিয়ে ছুয়ে দেখছেন, কেউ নিজের মুখটিকে ফুলের সৌন্দর্যে রাঙাতে ক্যামেরার ফ্রেমে বন্দি করে রাখছেন। শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে নানা বয়সী মানুষের পদচারণায় মেলা প্রথম দিনেই জমে ওঠে। সবচেয়ে বেশি ভিড় ছিল তরুণ-তরুণীদের।

পুষ্পমেলায় অংশ নেয়া বৃক্ষবাজার অ্যান্ড নার্সারি নামের একটি স্টলের পুরো অংশজুড়ে ছিল বিদেশি নানা ফুলের সমাহার। ফুল আর ফুলের গাছে সাজানো স্টলের সামনে দর্শনার্থীদের ভিড়ও ছিল বেশি। স্টল মালিক শফিউজ্জামান জানান, তার স্টলে শুধু গোলাপই আছে ১৫ প্রজাতির। সর্বনিু ৩০ টাকা থেকে তিন হাজার টাকা দামের ফুলের গাছ রয়েছে তার স্টলে।

‘মা নার্সারি’ স্টলে গিয়ে দেখা যায়, এই স্টলেও হরেক রকমের বিদেশি ফুল ও ফুলগাছ রয়েছে। তবে চোখ ধাঁধানো দেশি ফুলের নানা জাতের গাছ রয়েছে এই স্টলে। স্টল মালিক শামিম জানান, তার স্টলে স্টার, গ্যাজানিয়া, গাঁদা, গোলাপ, ডালিয়া, জারবেরা, ক্রিজিয়াম, সালেসিয়া, ইফোরবিয়াসহ নানা প্রজাতির দেশি-বিদেশি ফুল রয়েছে।

পুষ্পমেলায় গিয়ে কাজিহাটা এলাকার গৃহবধূ সুবর্ণা পারভীন বলেন, বাহারি ধরনের এত ফুল সচরাচর দেখা যায় না। অনেক ফুলপ্রেমী আছেন যারা বাইরে নার্সারিতে গিয়ে ভালো ফুল পান না। এ মেলায় এসে যেমন চারা পাবেন, তেমনি ফুলের চাষ এবং পরিচর্যা সম্পর্কে অনেক কিছু জানা যাবে। তাই প্রতিবছরই মেলায় আসি এবং টবসহ ফুলের গাছ কিনে নিয়ে যাই।

বৈকালী সংঘের সভাপতি রইস উদ্দিন বাবু বলেন, আধুনিক যুগের সঙ্গে তালমিলিয়ে দেশীয় ফুলের সঙ্গে বিদেশি জাতের নানা ফুল এখন দেশের উচ্চবিত্ত মানুষের বাগান ও ঘরবাড়ির সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে শোভা পায়। এগুলো ফুলপ্রেমী মানুষের মনে বাড়তি আনন্দ দিয়ে থাকে। নামিদামি অনেক ফুল সাধারণ মানুষের চোখে খুব একটা পড়ে না। তারা এ ফুলগুলোর সোন্দর্য উপভোগ করতেও পারেন না। সেদিক বিবেচনা করেই প্রতিবছর আমাদের এ আয়োজন।

এবার মেলা চলবে ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। রয়েছে ৩০টি স্টল। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে। সবার কাছে মেলাকে প্রাণবন্ত করতে মেলার সঙ্গে এবারও নানা বয়সী শিশুর আবৃত্তি, চিত্রাঙ্কন, নৃত্য, দেশের গান ও ছড়াগান প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে বিজয়ী শিশুদের মাঝে বিতরণ করা হবে পুরস্কার।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com