রাজশাহীতে ভারতীয় গরুর আধিক্য

বৃহস্পতিবার, ০৯ আগস্ট ২০১৮ | ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ |

রাজশাহীতে ভারতীয় গরুর আধিক্য
রাজশাহীতে ভারতীয় গরুর আধিক্য

রাজশাহী প্রতিনিধি: কোরবানি ঈদ আসতে প্রায় দুই সপ্তাখান বাকি। রাজশাহীর বৃহত্তম পশুর হাট সিটি হাটে উঠতে শুরু করেছে দেশি ও ভারতীয় গরু-মহিষ। তবে হাটে দেশী গরুর চেয়ে ভারতীয় গরুই বেশি। তবেুও দাম বেশ চড়া বলছে ক্রেতারা। তবে বিক্রেতারা বলছে, গরুর পাইকার ক্ষেতাই বেশি। কোরবানি দেওয়া ক্রেতারা গরু কিনতে তেমন আসেনি।

রাজশাহীর সিটি পশু হাট ঘুরে দেখা গেছে ভারতীয় সিন্ধু, আন্ধা, নেপালী, বল্ডার জাতের গরুই বেশি। এছাড়া দেশি জাতের গরু সেই তুলনায় অনেকটাই কম এমনটি বলছেন ক্রেতা-বিক্রেতারা। তবে হাটের কর্মীরা বলছে কোরবানি এগিয়ে আসলে দেশী গরুর উপস্থিত বাড়বে হাটে।

webnewsdesign.com

তবে লক্ষ্য করা গেছে, হাটের দক্ষিণ দিকে দেশী জাতের কিছু বাছুর (ছোট) গরু কেনা বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া হাটের রাস্তা দুই পাশে দেশী জাতের গরু কেনা-বেচা করতে দেখা গেছে।

গরু ব্যবসায়ী সাগর বলেন, তিনি হাটে নিয়ে এসেছেন ভারতীয় ২০টি আন্ধা জাতের গরু। প্রতিটির দাম দুই লাখ ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা চাচ্ছেন। সেই গরুর মাংস প্রায় নয় থেকে ১০ মণ। হাটে সেই তুলনায় গরু ক্রেতা আসেনি। তবে আগামী হাট থেকে ক্রেতা বাড়তে পারে।

তিনি আরো বলেন, প্রথম হাটে ৪২টি ভারতীয় আন্ধা জাতের গরু সিটি হাটে বিক্রি জন্য নিয়ে আসেন। দ্বিতীয় হাটে ১৮টি, তৃতীয় হাটে ৪৫টি ও গতকাল বুধবারের হাটে ২০টি গরু নিয়ে আসনে। এর মধ্যে কয়েকটি বিক্রি হয়েছে। তিনি আশা করছেন বাকি গরু গুলোও বিক্রি হয়ে যাবে।

সিটি হাটের ইজারাদার মো. ডাবলু বলেন, হাটে ভারতীয় গরুর চেয়ে দেশী গরু বেশি। হাটে যে গরুগুলো আছে সেগুলো বিভিন্ন কৃষকের বাড়ির। তারা তিন থেকে চার মাস আগে কিনে বাড়িতে পুষেছে। তাছাড়া ভারত থেকে ৫০ টি মহিষ আসলে গরু আসছে ১০টি । তবে মহিষের তুলনায় গরু কম আসছে।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com