লক্ষ্মী  পূজা উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন গ্রামে-গঞ্জে চলছে ঐতিহ্যবাহী ধামের গান (ফুটেজ সহ)

বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ | ৫:৩১ অপরাহ্ণ |

সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দেবী লক্ষ্মী  পূজা উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন গ্রামে-গঞ্জে চলছে ঐতিহ্যবাহী ধামের গান। এ গানকে স্থানীয়ভাবে অনেকে ‘ধামের গাউন’ বলেন। এটি মূলত জেলার ক্ষেত-খামারে খেটে খাওয়া মানুষের বিনোদনের জীবন্ত লোকনাট্যের প্রচলন। গ্রাম-গঞ্জে ধামের গান এখনও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পাশাপাশি বিভিন্ন ধর্মের মানুষের বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে টিকে আছে।

 

এতে জেলার বিভিন্ন উপজেলার ধামের গান পরিবেশনকারী দলের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে ধামের দল এসে গান পরিবেশন করে। ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার প্রায় প্রত্যেকটি ইউনিয়নে একযোগে ধামের গান চলে। তবে আকচা, বেগুনবাড়ী, মোহাম্মদপুর, ঢোলারহাট, রুহিয়া এসব ইউনিয়নে একটু বেশিই আয়োজন করা হয়।


ধাম শব্দের অর্থ স্থান বা আশ্রয়স্থল। হেমন্তে এই অঞ্চলে এ গানের আসর শুরু হয়ে চলে শীতের আগমন পর্যন্ত। ধামের গানের মধ্যে সমাজের বিভিন্ন উন্নয়ন, সমস্যা, সমাধান প্রকাশ করা হয় হাস্য-কৌতুক ও নাটকের মাধ্যমে। এতে গ্রামের সাধারণ মানুষের বিনোদনে মনের খোরাক (খাবার) জোগান দেয়া হয়।

গত মঙ্গলবার রাতে সদর উপজেলার আকচা ইউনিয়নের দক্ষিণ ঠাকুরগাঁও কামারপাড়া লক্ষ্মীরধামের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় ধামের গান ‘হাউসের বেহাই, রসের বেহানী’। এই ধামের গান পরিচালনা করে ‘উত্তর বোচাপুকুর পালাগান পরিচালনা দল।’ তারা বিভিন্ন শ্লোকের মাধ্যমে মোট ২০জনের দল নিয়ে এ ধামের গান পরিবেশন করে।

এতে ছেলেরা মেয়ে সেজে নাটকীয়তার মাধ্যমে অভিনয় করে থাকে। তারা নাটকের নিজস্ব অভিনয় শৈলীর মধ্য দিয়ে সমাজের নানান ঘটনা রঙ্গ-রস ও বিভিন্ন শ্লোকের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে বুঝিয়ে দেয়। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন এলাকার ধামের গানের মাধ্যমে বিভিন্ন ঘটনা পরিবেশন করা হয়। এর মধ্যে আস্বলসরি-পিছলা বাউধিয়া, হলদিসরি-সোনাইফাত্রা, জলসরি-জুলুম অরসিয়া, পাশ করা কামাইল, দশ নাম্বার আঢি হাকু দাকু অধিকারী, বউমার মিসকল নামে রয়েছে অনেক ধামের গান। এ গান সন্ধ্যা থেকে শুরু হয়ে চলে ভোর পর্যন্ত। এ সময় নারী, পুরুষ, শিশু, বৃদ্ধসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষের ঢল নামে। এ জাতীয় গ্রামীণ রীতি এখন শুধু হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই। এই ধামের গানের মাধ্যমে গ্রাম বাংলার মানুষের বিনোদনের চাহিদা অনেকাংশে পূরণ হয়ে থাকে। তাই সংশ্লিষ্টদের দাবি, সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা পেলে এই বিনোদন যুগ যুগ এভাবেই বেঁচে থাকবে।

এ বছর ধামের গান দেখতে নিজ এলাকা ঠাকুরগাঁওয়ে ছুটে এসেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের অধ্যাপক ড. ইস্রাফিল  শাহিন। তার সঙ্গে এসেছেন ওই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহামান মৈশান ও নাট্য বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থী। ধামের গান উপভোগ করে তাদের মন্তব্য, দর্শক-অভিনেতার তাত্ক্ষণিক সম্পর্কই ধামের গানের মূল শক্তি।
অধ্যাপক ড. ইস্রাফিল শাহিন বলেন,  অভিনয়ে প্রশিক্ষিত না হলেও তারা নিজস্ব কৌশলে যেভাবে দর্শকদের মাতিয়ে তোলেন তা কোনো অংশে কম নয়।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments



রাণীনগরে গভীর রাতে বাসায় ঢুকে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা…

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com