শীতের নয়, হোক মানবতার জয়

মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ | ৯:০৮ পূর্বাহ্ণ |

শীতের নয়, হোক মানবতার জয়
উজ্জ্বল সিনহা

উজ্জ্বল সিনহা

যতই দিন যাচ্ছে শীতের প্রকোপ বাড়ছে। দিনযাপন কঠিন থেকে কঠিনতর হয়ে পড়ছে গণ মানুষের। বিশেষ করে শীত নিবারণ করার মতো যাদের শীতবস্ত্র নেই। তাদের জন্য শীত শুধু অমঙ্গলের বিষয় নয়, অভিশাপও বটে!

webnewsdesign.com

ঠাকুরগাঁও জেলা বাংলাদেশের সর্ব উত্তরে অবস্থিত। দার্জিলিং হিমালয় খুব কাছাকাছি হওয়ায় পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুরের দিকে শীতের প্রভাব বাংলাদেশের অন্যান্য এলাকার চেয়ে একটু বেশিই হয়। তাছাড়াও আবহাওয়া অধিদপ্তর কর্তৃক জানা যায় যে এবছর জানুয়ারির দিকে উত্তরবঙ্গে শীত আরও ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করবে! এমতাবস্থায় আমরা ঝাঁক তরুণ উদ্যোগ নিয়েছি প্রত্যন্ত এলাকায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করবো। উল্লেখ্য যে, গতবছরও আমরা নিজস্ব উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ করতে সক্ষম হই।
কিভাবে হলো এ উদ্যোগের সৃষ্টি? এ উদ্যোগের সৃষ্টি বা ধারণা আসে মূলত আমারই রচিত ‘শীত এর গীত’ নামক একটি কবিতা থেকে।”
কবিতাটি ছিল এরকম….

শীত এর গীত
~~ উজ্জ্বল সিনহা
.
“আসছে হাড় কাঁপানো শীতের দিন,
কষ্টেসৃষ্টে দিন কাটাবে যারা গরীব,মিসকিন।
.
কারোর কারোর রাত কাটবে একেবারে ঘুমহীন,
কেউ গায়ে লেপ-তোশক মুড়িয়ে,দিবে বিন্দাস নিন।
.
অসহায় শীতার্তদের কেউ রাখবে না খেয়াল,
কেউ দেখবে না ওদের অবস্থা কতটা ভয়াল!
.
শীতে কারোর কাঁপবে শুদ্দু হাড়,
তবু কেউ নিবে না অসহায়দের ভার।
.
দামি দামি কাপড়ে কারো শরীর থাকবে সম্পূর্ণ ঢাকা,
আবার অনেকেরই দেহ থাকবে কাপড়হীনতায় ফাঁকা।
.
কেউ নিজেকে উষ্ণ রাখবে গরম কফি কিংবা চা’য়ে,
কেউবা নিজেকে উষ্ণ রাখবে আগুন তাপে গায়ে।
.
ভাই রে, শীত যখন কেউ করতে পারে না নিবারণ,
আমরা কেউ বুঝি না তার অবস্থা হয় কতটা জারণ।
.
ঠিক এভাবেই কেটে যাচ্ছে যুগের পর যুগ,
শীতার্তদের সাহায্যে আমরা হইনা উৎসুক।
.
তবুও আমি অধম সবাইকে একটা অনুরোধ করি,
পারলে সাহায্যের হাতটা বাড়িয়ে দিন তড়িঘড়ি।
.
যদি কিনা দেয়ার মত আপনার থাকে সম্বল, কমপক্ষে
একজনকে সংগ্রহ করে দিন অন্তত একটা কম্বল।”

গতবছর ফেসবুকে প্রকাশ হওয়ার পর এ কবিতাটি অনেকের হৃদয়ে নাড়া দেয়, কমেন্ট রিপ্লাই করতে করতেই শীতার্তদের শীতবস্ত্র বিতরণের ধারণা চলে আসে মাথায়। তারপর আমরা কয়েকজন সংঘবদ্ধ হয়ে কাজে নেমে পরি! গঠন করি একটা পরিবার।

received_550691231935785-688x425

পরিবারটির নাম “শীতার্তদের পাশে আমরা!” (একটা বিষয় উল্লেখ না করলেই নয়, তা হলো, আমাদের কার্যক্রম মূলত শীতার্তদের নিয়ে শুরু তাই এটি আপাতত “শীতার্তদের পাশে আমরা” নামে অভিহিত রয়েছে। কিন্তু সুখের বিষয় এই যে আমাদের কার্যক্রম শুধুমাত্র শীতার্তদের মাঝেই আটকে নেই! আমরা ইতোপূর্বে গরীব শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার সামগ্রী, দুঃস্থদের চিকিৎসাসহ আরো বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড করে আসছি! যা এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছে!)

আমরা যারা এসব সামাজিক কার্যক্রম করছি তারা অধিকাংশই ছাত্র। তাই অনেকেরই কৌতূহল জাগতে পারে, এত টাকাকড়ি আমরা কোথায় পাই? আমাদের আয়ের উৎস কি?
আসলে আমাদের উৎস হলো, এই বয়সে প্রতিটা সন্তান বাবা-মা’য়েদের কাছ থেকে ‘পকেট খরচ’ নামক একটা বরাদ্দ পায়। আমরা সেই বরাদ্দকৃত টাকার পুরোটাই সত্যিকার অর্থে ‘পকেট খরচ’ না করে সেখান থেকে কিছু টাকা বাঁচিয়ে শীতার্তদেরসহ অন্যান্য সামাজিক কার্যক্রম করি! এবং পরিচিত জনদের কাছ থেকেও টাকা সংগ্রহ করে অসহায়, দুঃস্থদের পাশে দাঁড়াই।

একপক্ষ দামি দামি কাপড়- চোপড়ে, লেপ- তোষকে সুখে শান্তিতে জীবনযাপন করবে, শীত নিবারণ করবে আর আরেকপক্ষ শীতবস্ত্রের অভাবে কষ্টেসৃষ্টে দিনানিপাত করবে, এই বিষয়টা আসলে আমরা মেনে নিতে পারছি না। আমরা এটার সমতায়ন চাই। সমতায়নের লক্ষ্যেই আমরা কাজ করে চলেছি।

এমন মহতী উদ্যোগে সকলের এগিয়ে আসা উচিত। বিশেষত বিত্তবানদের সর্বসাকুল্যে এগিয়ে আসাটা জরুরী। আমরা তরুণরা যে উদ্যোগটা নিয়েছি সেটা সফল করতে সকলের সহযোগীতা কামনা করছি। আমাদের কাছেই দেশের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের চাবিকাঠি। আমরাই পারি দেশকে উন্নত শিখরে পৌঁছে দিতে।

চাইলে আপনিও আমাদের সঙ্গে যোগদান করতে পারেন।
অনুদান পাঠানোর ঠিকানা:

রকেট: ০১৭৩৮৫১৬৬৫৩৭
বিকাশ: ০১৭৭৩৭৬৭৩৩০
০১৭৩৪১৯৫৩৪১
০১৭৭৩৯০১০৫৫

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com