সাবেক এমপি হাফিজ উদ্দিনের ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে লাঙ্গলের অস্থিত্ব নিয়ে টানাটানি!

শনিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০১৮ | ৯:১১ অপরাহ্ণ |

সাবেক এমপি হাফিজ উদ্দিনের ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে লাঙ্গলের অস্থিত্ব নিয়ে টানাটানি!

 

সাবেক এমপি হাফিজ উদ্দিনের ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে লাঙ্গলের অস্থিত্ব নিয়ে টানাটানি!

 

পীরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক, পীরগঞ্জ এর সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও সদ্য জাতীয় পার্টি থেকে পদত্যাগ করা হারুন-উর-রশীদ পারুল দৃষ্টি নিউজ এর প্রকাশকের সাথে আলাপচারিতায়, তাঁর পদত্যাগের কারণ এবং সাবেক এমপি হাফিজ উদ্দিনের দলীয় নানান ব্যার্থতার অজানা তথ্য, কু-কীর্তি, দুর্নীতি, নিজ দলের সাথে বেঈমানী ও দলের নেতাকর্মীদের অবমূল্যায়ন করে ক্ষমতার অপব্যবহার করাসহ বিভিন্ন বিষয়ে দৃষ্টি নিউজকে অবগত করেছেন।

 

 

গত ২৪/০১/২০১৮ইং তারিখে, হারুন-উর-রশীদ পারুল তাঁর Facebook এ একটি পোষ্ট এর মাধ্যমে  পীরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টি থেকে তাঁর পদত্যাগের বিষয়টি জন সম্মুখে তুলে ধরেন।

 

পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য দৃষ্টি নিউজ, হারুন-উর-রশীদ পারুলের সাথে ফোনে কথা বলেন।

 

দৃষ্টি নিউজ এর প্রকাশককে তিনি তাঁর পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন এবং কি কারণে পদত্যাগ করেছেন সেটিও  ফোন আলাপে বিস্তারিত জানান এবং ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের সাবেক এমপি হাফিজ উদ্দিনের নানান অজানা তথ্য ফাঁস করেন।

 

হারুন-উর-রশীদ পারুল বলেন, ঠাকুরগাঁওয়ে তথা পীরগঞ্জ উপজেলায় জাতীয় পার্টির কোনো অস্থিত্ব নেই। সাবেক এমপি হাফিজ উদ্দিন একাই সব কমিটির পদ দখল করে বসে আছেন। থানা কমিটি নাই, পৌর কমিটি নাই, ইউনিয়ন কমিটি নাই, ওয়ার্ড কমিটি নাই, কমিটিতে কোনো লোক নাই।পীরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির কমিটি চলতো মাত্র তিনজন ব্যক্তি নিয়ে(সভাপতি, হাফিজ উদ্দিন; সাধারণ সম্পাদক,ইসাহাক আলী;সাংগঠনিক সম্পাদক, হারুন-উর-রশীদ পারুল)।

 

সাবেক এমপি হাফিজ উদ্দিনের ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে জনপ্রিয়তা ও অবস্থান সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে হাফিজ উদ্দিনের জনপ্রিয়তা শূণ্য। মাঠে বলেন বা দলের ভীতরে বলেন, কোনো খানেই তাঁর কোনো অবস্থান নেই। তিনি দলের নেতাকর্মীদের সাথে ভাল ব্যবহার করেন না, তাঁর কিছু চামচা আছে যাদের নিয়েই তিনি রাজনীতি করেন।

 

তাঁর পরিবার সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তার ছোট ছেলের ৩৮ বছর জেল হয়েছে। খুনের মামলায় ৩০ বছর এবং লাশগুম করার জন্য ৮ বছর। তাঁর বড় ছেলের ব্যবহারও তেমন ভাল না। কর্মীদের সাথে যোগাযোগ করেন না। বলতে গেলে পারিবারিক ভাবেই তারা অন্য রকম। মানুষকে মানুষ হিসেবে মনেই করেন না। তিনি আরো বলেন, হাফিজ উদ্দিন বাস্তবে রাজিনৈতিক ব্যক্তি না, তিনি আসলে ব্যবসায়ি। রাজনৈতিক কর্মকান্ডে তাদের কোনো সাড়া পাওয়া যায়না।

 

পদত্যাগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন,২০০৩ সাল থেকে আজকে পযর্ন্ত আমি পীরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলাম। আজকে আমাদের থানা কমিটি গঠন হওয়ার কথা ছিল কিন্তু কমিটিতে কোনো লোক নেই, ১২/১৪জন লোক যাদের কোনো পদ নেই, তাদের এমনিতেই ডেকে আনা হয়েছিল। তিনি এ বিষয়ে অনেক দিন থেকেই পীরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হাফিজ উদ্দিনকে বলে আসছেন কিন্তু হাফিজ উদ্দিন কোনো মূল্যায়ন করেননি। তিনি অভিযোগ করে বলেন, হাফিজ উদ্দিন কাউকে কিছু করতে দেননা, তিনি একাই সব। তিনি আরো বলেন, ১২/১৪ জন লোক নিয়ে হাফিজ উদ্দিন কি করে এমপি হবেন! তাই আমি ওখানেই পদত্যাগ করে চলে এসেছি। এক কথায় ঠাকুরগাঁও তথা পীরগঞ্জে জাতীয় পার্টির কোনো অস্থিত্ব না থাকায় তিনি পদত্যাগ করেছেন।

 

আওয়ামীলীগের সাথে হাফিজ উদ্দিনের সম্পর্ক কেমন জানতে চাইলে তিনি বলেন, আওয়ামীলীগের সাথে তাঁর দা-কুমড়া সম্পর্ক। আওয়ামীলীগের কোনো লোককে তিনি কখনো সম্মান দেননা। আওয়ামীলীগকে মনেপ্রাণে ঘৃণা করেন । তবে বিএনপির সাথে তাঁর একটা ভাল সম্পর্ক আছে বলে তিনি আমাদের জানান।হাফিজ উদ্দিন এক সময় বিএনপিতে যোগ দেওয়ার কথা ছিলো বলেও তিনি জানান। তিনি আরো জানান, হাফিজ উদ্দিন এখনো বিএনপির চামচামি করে যাচ্ছেন। যদি আওয়ামীলীগ হাফিজ উদ্দিনকে গ্রহণ না করেন, তাই এখনো তিনি আশায় আছেন বিএনপিতে যোগ দেওয়ার জন্য। তিনি আরো বলেন, বিএনপিকে তেল দিয়েই তিনি সব কাজ করে নিতেন। তারেক জিয়া এবং মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাথে তাঁর  একটা ভাল সম্পর্ক আছে। তিনি এও জানান যে, হাফিজ উদ্দিনের অর্ধেক অংশ বিএনপিতে আর অর্ধেক অংশ জাতীয় পার্টিতে। তিনি আরো উলেখ্য করে বলেন, তিনি একজন জামাত ঘেষা লোক, শুধু তাই নয় তিনি জামাতের প্রিয় বন্ধু।বিএনপি,জামাত এর সাথে ঘনিষ্ঠতা থাকার কারণে একসময় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ সাহেব হাফিজকে গলাধাক্কা দিয়ে বাসা থেকে বের করে দিয়েছিলেন। জাতীয় পার্টির হাইকমান্ডও তাঁর পক্ষে নেই। সেন্ট্রাল থেকে যে  তাঁর পক্ষে মহাজোটে মনোনয়ন চাইবেন এমন কেউ তাঁর পক্ষে নেই। হাতুড়ি মার্কার কাছে পরাজিত হওয়ার কারণে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দগণ হাফিজ উদ্দিনের উপর খুবই নারাজ। জানা গেছে হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এর সাবেক স্ত্রী বিদিশার গ্রীণ রোডের পার্লারে হাফিজ উদ্দিনের নিয়মিত যাতায়াত আছে জানতে পেরে  হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ জানতে পারেন।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

সংবাদ গ্যালারির সম্পাদকের ভাই নূরনবী মিরন আর নেই…

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com