স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূ নিহত, অত:পর লাশ রেখে উধাও পরিবারের সদস্যরা

শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮ | ১০:২১ পূর্বাহ্ণ |

স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূ নিহত, অত:পর লাশ রেখে উধাও পরিবারের সদস্যরা
প্রতীকী ছবি

যশোরের শার্শা উপজেলায় জোহরা খাতুন (৩৪) নামে এক গৃহবধূর লাশ ঘরে রেখে পালিয়ে গেছে তার স্বামীর বাড়ির সদস্যরা।

শুক্রবার (২০ এপ্রিল) সকাল ৮টার দিকে উপজেলার বাগআঁচড়ার সাতভাই পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। জোহরা খাতুন বেনাপোল পোর্ট থানার বালুন্ডা গ্রামের নুর ইসলামের মেয়ে। তার স্বামী রিপন হোসেন (৩৮) শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া সাতভাই পাড়ার মোসলেম গাজীর ছেলে।

webnewsdesign.com

প্রতিবেশী ও জোহরার স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে ও শুক্রবার সকালে জোহরাকে ব্যাপক মারপিট করেন স্বামী রিপন। এতে সকাল ৮টার দিকে জোহরা মারা যান। এ ঘটনাকে তারা ‘আত্মহত্যা’ বলে প্রচার করার জন্য লাশ ঘরের আড়ার সাথে ওড়না দিয়ে ঝুলিয়ে রাখে। পরে জোহরার ছেলে হৃদয়ের (১৩) কান্নাকাটি দেখে আশপাশের লোকজন এসে লাশ উদ্ধার করেন।

হৃদয় বলে, ‘কাল রাতে ও আজ ভোরে আব্বা আমার মাকে খুব মেরেছে।’


জোহরার বাবা নুর ইসলাম ও মা মেহেরুন জানান, জামাইকে অনেক টাকা ও জিনিসপত্র দেয়ার পরও নির্যাতন বন্ধ হয়নি।

নুর ইসলামের দাবি, ‘সে আমার মেয়েকে হত্যা করে লাশ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে। আমরা উপযুক্ত বিচার চাই।’


শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম. মশিউর রহমান বলেন, নিহতের শরীরে আঘাতের অনেক চিহ্ন পাওয়া গেছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় শার্শা থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। ঘটনার পর রিপন ও তার পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে বলে জানান ওসি।

আপনার মুল্যবান মতামত দিন......

comments

প্রধান কার্যালয়: শিমুল লজ, ১২/চ/এ/২/৪ (২য় তলা), রোড নং ৪, শেরেবাংলা নগর,শ্যামলী,ঢাকা‌.
বার্তা বিভাগ-01763234375 অথবা 01673974507, ইমেইল- sangbadgallery7@gmail.com

আঞ্চলিক কার্যালয়: বঙ্গবন্ধু সড়ক, আধুনিক সদর হাসপাতাল সংলগ্ন, বাসস্ট্যান্ড, ঠাকুরগাঁও-৫১০০

2012-2016 কপি রাইট আইন অনুযায়ী সংবাদ-গ্যালারি.কম এর কোন সংবাদ ছবি ভিডিও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া অন্য কোথায় প্রকাশ করা আইনত অপরাধ

Development by: webnewsdesign.com